সব বর্ডার সিল, অন্য রাজ্যে পাড়ি দেওয়া চলবে না কোনও মতে, কড়া সুর কেন্দ্রের

বাড়ি ফেরার বাসে উঠতে দুধের শিশুকে মায়ের কোলে ছুঁড়ে মারছেন বাবা।

যারা নিয়ম ভেঙেছেন তাদের প্রত্যেককে ,সরকারি কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।গোটা কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্যে রাজ্যগুলির জেলাশাসক এবং ভারপ্রাপ্তপুলিশ সুপারের ওপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ভীনরাজ্য থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের রুখতে সমস্ত সীমান্ত বন্ধ করে দিতে রাজ্য গুলিকে অনুরোধ করা হল কেন্দ্রের তরফে। শনিবার রাতে দিল্লি প্রায় ভেঙে পড়েছিল কয়েক হাজার শ্রমিক লকডাউন ভেঙে ঘরে ফেরার তাড়নায় রাস্তায় নেমে পড়ায়। এই পদক্ষেপ আটাকেতে রবিবার একটি জরুরিকালীন ভিডিও কনফারেন্সের আয়োজন করা হয় কেন্দ্রে তরফে। কনফারেন্সে ছিলে স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় ভাল্লা ও ক্যাবিনেট সেক্রেটারি রাজীব গৌবা। তাঁরা সমস্ত রাজ্যের ডিজি পুলিশের ডিজিপি ও চিফ সেক্রেটারিকে বলেন, শহরের রাস্তায় , বড় সড়কগুলিতে যাতে চলাচল একেবারে বন্ধ করে দেওয়া যায় তা সুনিশ্চিত করতে।

    উঠে আসে অন্য রাজ্যে কাজ করতে যাওয়া শ্রমিকদের বাড়ি ফেরত আসা প্রসঙ্গেও। বিবৃতিতে বলা হয়,দেশের নানা প্রান্তেই দেখা যাচ্ছে শ্রমিকরা পথে নেমে পড়ছেন। এ ভাবে পথে নামা রুখতেই হবে। সিল করতে হবে প্রতিটি রাজ্য এমনকি জেলার সীমান্তও। শুধুমাত্র চালু রাখতে হবে অত্যাবশ্যকীয় পণ্য চলাচল ব্যবস্থা।

    এ়কই সঙ্গে যারা নিয়ম ভেঙেছেন তাদের প্রত্যেককে ,সরকারি কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।গোটা কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্যে রাজ্যগুলির জেলাশাসক এবং ভারপ্রাপ্তপুলিশ সুপারের ওপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রের অনুরোধ যাতে সমস্ত দরিদ্র, ভবঘুরে, আশ্রয়হীন যেন এই সময় খাওয়ার পান।

    Published by:Arka Deb
    First published: