corona virus btn
corona virus btn
Loading

চাপে পড়ে ভোলবদল অনন্ত হেগড়ের, জানালেন মন্তব্যে গান্ধিজীর নাম উল্লেখ করেননি

চাপে পড়ে ভোলবদল অনন্ত হেগড়ের, জানালেন মন্তব্যে গান্ধিজীর নাম উল্লেখ করেননি
Photo Courtsey- ANI/ Twitter

গান্ধিজী -র আন্দোলন নাটক, এই মন্তব্য নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ

  • Share this:

#নয়াদিল্লি :  ক্ষমা চাইবেন না , তিনি নিজের মন্তব্যে কোথাও গান্ধিজীর নাম করেননি -বির্তকের পরের দিন জানিয়ে দিলেন বিজেপি নেতা অনন্ত কুমার হেগড়ে ৷  তবে ক্ষমা না চাইলেও নিজের অনড় ও কটূ মন্তব্য গান্ধিজীর উদ্দেশ্যে নয় জানিয়েছেন তিনি ৷

গোটা ঘটনার শুরু হয় একদিন আগে থেকে ৷ অন্ন্ত হেগড়ে জানিয়েছেন, গান্ধিজির স্বাধীনতা সংগ্রাম না কি আসলে নাটক। ফের আসরে বিজেপি সাংসদ অনন্তকুমার হেগড়ে। রে রে করে উঠেছে কংগ্রেস। তাদের দাবি, এটাই আসলে বিজেপির মুখ। অস্বস্তিতে পদ্ম শিবির। হেগড়ের মন্তব্যে বেজায় ক্ষুব্ধ মোদি। সাংসদকে শোকজ বিজেপির৷

‘গান্ধিজির স্বাধীনতা সংগ্রাম আসলে নাটক’- বিজেপি সাংসদের মন্তব্যে জোর বিতর্ক ৷ শনিবার বেঙ্গালুরুর একটি অনুষ্ঠানে, খোদ জাতির জনক, মহাত্মা গান্ধিকেই নিশানা করেন কর্নাটকের ৬ বারের বিজেপি সাংসদ এবং মোদি মন্ত্রিসভার প্রাক্তন সদস্য অনন্তকুমার হেগড়ে।

তিনি বলেছিলেন, ‘তথাকথিত নেতাদের একবারও পুলিশের মারধর খেতে হয়নি। তাঁদের স্বাধীনতা সংগ্রাম আসলে বড় নাটক। ব্রিটিশ শাসকের অনুমতি নিয়েই নাটক মঞ্চস্থ হয়। সমঝোতা করে স্বাধীনতা সংগ্রাম। কংগ্রেসের সমর্থকরা বলেন, ভারত স্বাধীনতা পেয়েছে আমরণ অনশন এবং সত্যাগ্রহের জেরে। সত্যাগ্রহের কারণে ব্রিটিশরা ভারত ছাড়েনি। হতাশ হয়ে আমাদের স্বাধীনতা দেন। ইতিহাস যখন পড়ি আমার রক্ত ফুটতে শুরু করে। এমন মানুষ আমাদের দেশে মহাত্মা হয়ে ওঠেন৷ ’

আরও পড়ুন - ঘেরাও থেকে বাঁচতে পিছনের দরজা দিয়ে বেরিয়ে গেলেন প্রেসিডেন্সির উপাচার্য

দেশ-বিদেশে নরেন্দ্র মোদির গলায় বারবার শোনা যায় মহাত্মার গুনগান। আর তাঁর দলেরই সাংসদ কি না গান্ধিজির স্বাধীনতা সংগ্রামকে নাটক বলে দেগে দিলেন। কংগ্রেস তাই নিশানা করেছে মোদিকেই। অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি টুইটারে লিখেছেন, ‘নরেন্দ্র মোদি আন্তর্জাতিক মহলে বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জনে মহাত্মা গান্ধিকে স্মরণ করেন। সেই মোদি এখন হেগড়ের মন্তব্য নিয়ে কী বলেন তার অপেক্ষায় রয়েছি৷ ’

জাতির জনককে নিশানা। সমালোচনায় বিরোধীরা। অস্বস্তিতে বিজেপি। সূত্রের খবর, বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব অনন্তকুমার হেগড়েকে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশে দিয়েছেন। এর আগেও নানা মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ান বিজেপি সাংসদ হেগড়ে।  কখনও রাহুল গান্ধিকে কংগ্রেস ল্যাবরেটরির হাইব্রিড নেতা বলে কটাক্ষ করেন কখনও আবার কর্নাটকের প্রাক্তন IAS অফিসারকে দেশদ্রোহী বলে দেগে দিয়ে পাকিস্তানে চলে যাওয়ার ফতোয়া দেন।

Published by: Debalina Datta
First published: February 4, 2020, 4:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर