গান্ধি পরিবারের এসপিজি-প্রত্যাহার, মোদি সরকারকে আক্রমণ কংগ্রেসের

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Nov 09, 2019 05:06 PM IST
গান্ধি পরিবারের এসপিজি-প্রত্যাহার, মোদি সরকারকে আক্রমণ কংগ্রেসের
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Nov 09, 2019 05:06 PM IST

#নয়াদিল্লি: মনমোহন সিংয়ের পর এবার গান্ধি পরিবার। সনিয়া, রাহুল ও প্রিয়ঙ্কা গান্ধির এসপিজি নিরাপত্তা তুলে নিল মোদি সরকার। পরিবর্তে থাকবে সিআরপিএফ। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে।

চলতি বছর অগাস্টেই প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের এসপিজি নিরাপত্তা প্রত্যাহার করেছিল কেন্দ্র। এবার গান্ধি পরিবারের স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপের নিরাপত্তাও তুলে নিল মোদি সরকার।

- গান্ধি পরিবারের এসপিজি নিরাপত্তা প্রত্যাহার

- সনিয়া-রাহুল-প্রিয়ঙ্কাকে জেড প্লাস নিরাপত্তা

- এসপিজির বদলে নিরাপত্তায় সিআরপিএফ

Loading...

কেন্দ্রের তরফে বলা হচ্ছে, গান্ধি পরিবারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও তাঁদের উপর হামলার আশঙ্কা খতিয়ে দেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া মোদি প্রশাসনের অভিযোগ, গত বেশ কয়েকবছর একাধিকবার এসপিজি নিরাপত্তার প্রোটোকল ভেঙেছে গান্ধি পরিবার।

- ২০১৫ সাল থেকে ২৪ বার বিদেশ সফরে এসপিজি নিরাপত্তা নেননি সনিয়া গান্ধি

- ১৯৯১ সাল থেকে রাহুল গান্ধি এসপিজি নিরাপত্তা নেননি ১৪৩টি বিদেশ সফরে

- এসপিজি নিরাপত্তা ছাড়া ৭৮ বার বিদেশে গিয়েছেন প্রিয়ঙ্কা গান্ধি

- ২০১৫ সাল থেকে দিল্লিতে ৫০ বার বুলেট প্রুফ গাড়ি ব্যবহার করেননি সনিয়া গান্ধি

- রাহুল গান্ধি ১৮৯২ বার বুলেট প্রুফ গাড়ি ব্যবহার করেননি

- প্রিয়ঙ্কা গান্ধি ৩৩৯ বার বুলেট প্রুফ গাড়ি ছাড়াই দিল্লিতে ঘুরেছেন

কেন্দ্র এসব যুক্তি দিলেও, মানতে নারাজ কংগ্রেস। তাদের অভিযোগ, গান্ধি পরিবারের জীবন নিয়ে খেলছে মোদি সরকার। এসপিজি প্রত্যাহারের প্রতিবাদে শুক্রবার ক্যাবিনেট সচিবকে চিঠি লিখেছে কংগ্রেস। (চিঠি হাইলাইট) প্রয়োজনে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ারও ভাবনাচিন্তা করছেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব।

কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের পর এদিন টুইটে এসপিজি কর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে টুইট করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি। তাঁর টুইট,

- এতবছর ধরে আমার ও আমার পরিবারকে সুরক্ষিত রাখার জন্য এসপিজির ভাইবোনদের ধন্যবাদ

- রাহুল গান্ধি, কংগ্রেস নেতা

আইনি লড়াইয়ের পাশাপাশি পথে নেমেও প্রতিবাদে কংগ্রেস। এদিন রাজধানীতে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাড়ির কাছে বিক্ষোভ দেখান যুব কংগ্রেসের সদস্যরা।

First published: 05:06:49 PM Nov 09, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर