• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • SONIA GANDHI CONGRESS CHIEF CALLED PARLIAMENTARY STRATEGY MEETING ON WEDNESDAY

Congress Meeting| Adhir Ranjan Chowdhury| বুধে সোনিয়ার ডাকে কংগ্রেসের জরুরি বৈঠক, অধীর-পালা কি কালই?

আগামীকালই মুখোমুখি হচ্ছেন অধীর চৌধুরী সোনিয়া গান্ধিরা। ফাইল চিত্র

Congress Meeting| Adhir Ranjan Chowdhury| বৈঠক হবে ভার্চুয়ালই। অধীরকে ভার থেকে অব্যাহতি কি কালই, প্রশ্ন রাজনৈতিক মহলে।

  • Share this:

    #কলকাতা: সামনেই লোকসভার বাদল অধিবেশন। তার পাঁচ দিন আগে, আগামিকাল বুধবারই কংগ্রেসের সংসদীয় নীতি নির্ধারক কমিটির সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন সোনিয়া গান্ধি। বৈঠক হবে ভার্চুয়ালই। বৈঠকে থাকতে পারেন রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা মল্লিকার্জুন খারগে, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি, লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। পাশাপাশি থাকবেন গৌরব গগৈ, জয়রাম রমেশ, কে সুরেশ-সহ অন্যরা।

    কী নিয়ে কথা হবে এই বৈঠকে? সূত্রের খবর, কোভিড পরিস্থিতিতে দেশের আর্থিক অবস্থা, এবং পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধি নিয়ে কী ভাবে গেরুয়া শিবিরকে সংসদের ভেতরে কী ভাবে চাপে ফেলা যায় তা নিয়ে আলোচনা হতে পারে। আলোচনা হতে পারে রাফাল 'দুর্নীতি' নিয়েও।

    পাশাপাশি এই বৈঠকে কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধি বিরোধী দলনেতা হিসেবে অধীররঞ্জন চৌধুরীর নাম জানাতে পারেন বলেও মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের। এই মুহূর্তে অধীর চৌধুরীর বিকল্প হিসেবে যে দুটি নাম নিয়ে প্রবল জল্পনা তারা হলেন গৌরব গগৈ ও শশী থারুর।

    তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভোট লড়তে এবার আদাজল খেয়ে নেমেছেন কংগ্রেস বাম এবং আইএসএফ-এর সংযুক্ত মোর্চা। কিন্তু তার ফল যা হয়েছে তা অতি বাম-কংগ্রেস বিরোধীযও ভাবতে পারেনি। ৪০ বছরে প্রথম বার বিধানসভায় নেই বাম-কংগ্রেস। অধীর এই জোটের গাঁটছড়া বাধলেও রাজনৈতিক মহলে একটি চালু মত, প্রাথমিক ভাবে মমতার সঙ্গে দূরত্ব চাননি কংগ্রেস হাইকমান্ড। এমনকি রাজ্য কংগ্রেসের একটি লবি থেকে এই বিধানসভায় তৃণমূল- কংগ্রেস জোট এর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল তবে অধীরের নেতৃত্বেই মোর্চা তৈরি হওয়ায় সেই সমঝোতার সম্ভাবনা তৈরি হয়নি। এমনকি অধীর চৌধুরী বিজেপি নেতাদের সঙ্গে সখ্য বজায় রাখলেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যেন তাঁর চির বৈরিতা, আর এই বিষয়টিকে ভালো ভাবে দেখে না কংগ্রেসের একাংশই।

    এখানেই শেষ নয় প্রদেশ একটা বড় অংশই মনে করছে অধীর চৌধুরীর এই মনোভাবের কারণে মুর্শিদাবাদেও জমি হারিয়েছে দল। আর তার ফায়দা গিয়েছে তৃণমূলেরই ঘরে। স্বাভাবিক ভাবেই ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনে  ভুলের মাশুল গুণতে রাজি না কংগ্রেস। কাজেই বিরোধীদের সেতুবন্ধনের পথে অধীর চৌধুরী যাতে কোনও ভাবেই যাতে বাধা হয়ে না দাঁড়ান, সেই ব্যবস্থা নিশ্চিত করতেই সোনিয়া গান্ধি দলনেতার পদ থেকে তাঁকে সরাতে চান, এমনটাই মত পর্যবেক্ষকদের।

    Published by:Arka Deb
    First published: