• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • জল কামান বন্ধ করলেন কৃষক নেতার ছেলে, খুনের চেষ্টার অভিযোগ আনল পুলিশ

জল কামান বন্ধ করলেন কৃষক নেতার ছেলে, খুনের চেষ্টার অভিযোগ আনল পুলিশ

জল কামান বন্ধ করে লাফ দিচ্ছেন নভদীপ৷

জল কামান বন্ধ করে লাফ দিচ্ছেন নভদীপ৷

যার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ, তাঁর নাম নভদীপ সিং৷ ২৬ বছর বয়সি নভদীপ কৃষক নেতা জয় সিং-এর ছেলে৷

  • Share this:

    #দিল্লি: প্রবল ঠান্ডার মধ্যেই বিক্ষোভরত কৃষকদের উপরে জল কামান থেকে জল ছোড়া হচ্ছিল৷ যাতে তাঁরা দিল্লিতে প্রবেশ করতে না পারেন৷ আচমকাই একটি জল কামানের গাড়ির মাথায় চড়ে জল ছোড়ার কলের মুখ বন্ধ করে দিয়েছিলেন আম্বালার বাসিন্দা এক যুূবক৷ সেই অপরাধেই তাঁর বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছে বিজেপি শাসিত হরিয়ানার পুলিশ৷ যার সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড৷ পাশাপাশি দাঙ্গা বাঁধানো এবং করোনা অতিমারির নিয়ম ভঙ্গেরও অভিযোগ আনা হয়েছে ওই যুবকের বিরুদ্ধে৷

    যার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ, তাঁর নাম নভদীপ সিং৷ ২৬ বছর বয়সি নভদীপ কৃষক নেতা জয় সিং-এর ছেলে৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিও-তে দেখা গিয়েছে, হরিয়ানা দিল্লি সীমান্তে কৃষকদের বিক্ষোভের সময় একটি জল কামানের মাথায় উঠে পড়েছে নভদীপ৷ তার পর জল কামানটি বন্ধ করে দিয়ে লাফিয়ে একটি ট্র্যাক্টরের উপরে নেমে আসছেন তিনি৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো নায়কের মর্যাদা পাচ্ছেন নভদীপ৷ অন্যদিকে কৃষকদের বিরুদ্ধে আগ্রাসী হয়ে ওঠার জন্য তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে হরিয়ানা পুলিশ৷

    নভদীপ জানিয়েছেন, পড়াশোনা শেষ করার পর বাবার সঙ্গে কৃষি কাজ করতেন তিনি৷ প্রবল ঠান্ডায় কৃষকদের জল কামান থেকে বাঁচাতেই যা করার তাই করেছেন তিনি৷ নভদীপ বলেন, 'আমি কখনও কোনও বেআইনি কাজে জড়াই না৷ কৃষকদের বাঁচাতে হবে, এ কথা ভেবেই সাহস করে জল কামানের মাথায় উঠে পড়েছিলাম৷'

    নভদীপের দাবি, জনবিরোধী আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার অধিকার প্রত্যেক নাগরিকের রয়েছে৷ তিনি বলেন, 'শান্তিপূর্ণ ভাবে বিক্ষোভ দেখাতে দেখাতে আমরা দিল্লিতে প্রবেশ করতে দেওয়ার দাবি জানিয়েছিলাম৷ কিন্তু পুলিশ আমাদের পথ আটকাচ্ছিল৷ জনবিরোধী আইন পাস হলে আমাদের সরকারকে প্রশ্ন করার পূর্ণ অধিকার রয়েছে৷'

    রাজধানীতে প্রবেশ করতে দেওয়ার দাবিতে শুক্রবার হরিয়ানা-দিল্লি সীমান্তের দিকে এগিয়ে আসেন হাজার হাজার কৃষক৷ টিয়ার গ্যাস ফাঁটিয়ে, জল কামান ব্যবহার করে, ব্যারিকেড বানিয়ে তাঁদের আটকাতে হিমশিম খায় পুলিশ৷ বার বার পুলিশ- বিক্ষোভকারী সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি৷ শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের শর্তে কৃষকদের দিল্লিতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়৷

    মূলত পঞ্জাব থেকে আসা কৃষকরাই এই বিক্ষোভের নেতৃত্ব দিচ্ছেন৷ অন্তত তিরিশটি কৃষক সংগঠন এই বিক্ষোভে সামিল হয়েছে৷ নতুন পাস হওয়া তিনটি কৃষি আইন বাতিল করার দাবি জানাচ্ছেন তাঁরা৷ পাশাপাশি ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের গ্যারান্টি দাবি করছেন কৃষকরা৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: