Home /News /national /

নীরবেই করলেন দেশের সবচেয়ে বড় ব্যাঙ্ক জালিয়াতি, জেনে নিন ধনকুবেরের বেড়ে ওঠার কাহিনী

নীরবেই করলেন দেশের সবচেয়ে বড় ব্যাঙ্ক জালিয়াতি, জেনে নিন ধনকুবেরের বেড়ে ওঠার কাহিনী

হাইপ্রোফাইল ধনকুবেরই দেশ ছাড়লেন দেশের বৃহত্তম ব্যাঙ্ক জালিয়াতির দায় মাথায় নিয়ে।

  • Share this:

    #মুম্বই: অস্কারের মঞ্চে দ্যূতি ছড়ায় তাঁর হিরের অলঙ্কার। কেট উইন্সলেট, ঐশ্বর্যা রাই, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মতো তারকা তাঁর সংস্থার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শিল্পপতিদের বৈঠকে হাজির নীরব মোদি। এমন হাইপ্রোফাইল ধনকুবেরই দেশ ছাড়লেন দেশের বৃহত্তম ব্যাঙ্ক জালিয়াতির দায় মাথায় নিয়ে। সোশাল মিডিয়ায় দিনভর তাই নীরব মোদি, ললিত মোদি আর বিজয় মালিয়ার তুলনা টানা হল।

    পারিবারিক সূত্রেই হিরের কারবার। বেড়ে ওঠাও হিরের রাজধানী বলে খ্যাত বেলজিয়ামের অ্যান্টওয়ার্প শহরে। হোয়ার্টন বিজনেস স্কুলে থাকতেই পড়াশোনা ছেড়ে ব্যবসায় নামেন। প্রথমদিকে কাকার তত্ত্বাবধানে কাজ শুরু করেন নীরব মোদি। পরে গড়ে তোলেন নিজের সংস্থা ফায়ারস্টার ডায়মন্ডস সংস্থা। লন্ডন থেকে নিউইয়র্ক, মুম্বই থেকে দুবাই ৷ বিশ্বের সমস্ত বড় শহরে হিরের বুটিক রয়েছে নীরব মোদির। ফায়ারস্টার ডায়মন্ডসের পর নিজের নামেও হিরের গয়না চালু করেছেন এই ধনকুবের। গত বছর ভারতে তাঁর সংস্থার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হয়েছিলেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

    অস্কারের মঞ্চে কেট উইন্সলেটের শরীর জড়িয়ে থাকে তাঁর নকশা করা হিরের গয়না। তাঁর নকশা করা অলঙ্কারের জন্য খুঁজে আনা হয় দুষ্প্রাপ্য হিরে। দাম পৌঁছয় ৫০ কোটি টাকা পর্যন্ত। সদ্‌বিজ ও ক্রিস্টিজের নিলামেও ঘুরে ফিরে আসে তাঁর গয়না। যেমন, বছর আটেক আগে ক্রিস্টিজে নীরব মোদির ব্র্যান্ডের গোলকোন্ডা নেকলেসের দর উঠেছিল ১৬.২৯ কোটি টাকা। সেই ধনকুবেরের বিরুদ্ধেই এ বার প্রতারণার অভিযোগ আনল পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক।

    15_02_2018-niravmodi জানুয়ারি মাসে ব্যাঙ্ক প্রতারণার অভিযোগ পায় সিবিআই। একত্রিশে জানুয়ারি দিল্লি, সুরাত এবং জয়পুরে নীরব মোদির সংস্থার একাধিক দফতরে হানা দেন তদন্তকারীরা। বৃহস্পতিবারও মুম্বই এবং দিল্লিতে ফায়ারস্টার ডায়মন্ডসের বিভিন্ন শোরুমে তল্লাশি চালিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডায়রেক্টরেট ও সিবিআই। তবে পিএনবি কেলেঙ্কারির পূর্ণাঙ্গ তদন্ত শুরুর আগেই দেশ ছেড়েছেন নীরব মোদি। খোঁজ নেই তাঁর স্ত্রী অমি, ভাই নিশল আর মামা মেহুল চকসিরও। নীরব মোদির স্ত্রী অমির বাসভবন সিল সিল করে দিয়েছে সিবিআই। ব্যাঙ্ক জালিয়াতির তদন্তে এদিন পঞ্জাব ন্যাশানাল ব্যাঙ্কের শীর্ষকর্তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। গত তেইশে জানুয়ারি সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকনমিক ফোরামের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন নীরব মোদি। শিল্পপতিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একটি ছবিতে দেখা গিয়েছে ওই ধনকুবেরকে। এনিয়ে মোদি সরকারকে বিঁধতে ছাড়েনি বিরোধীরা। সরকারপক্ষের পালটা যুক্তি, নিজে থেকেই সুইজারল্যান্ডে গিয়েছিলেন নীরব মোদি। প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী তিনি ছিলেন না। রাজনীতি তো বটেই, নীরব মোদিকে ঘিরেই দিনভর সরব ছিল সোশ্যাল মিডিয়া। অনেকের মতে, ন হাজার কোটি টাকার দেনা নিয়ে দেশ ছেড়েছিলেন বিজয় মালিয়া। আর নীরব মোদি ভারত ছেড়েছেন সাড়ে এগারো হাজার কোটি টাকার জালিয়াতির অভিযোগ মাথায় নিয়ে।

    First published:

    Tags: Biggest Bank Scam, Diamond Business, Nirav Modi, Nirav Modi Profile, Punjab National Bank

    পরবর্তী খবর