Home /News /national /

মাত্র ৩ মাসে ৭৬ জন নিখোঁজ শিশু উদ্ধার, সোশ্যাল মিডিয়ার নতুন 'হিরো' দিল্লি পুলিশের সীমা

মাত্র ৩ মাসে ৭৬ জন নিখোঁজ শিশু উদ্ধার, সোশ্যাল মিডিয়ার নতুন 'হিরো' দিল্লি পুলিশের সীমা

এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ার একমাত্র 'হিরো' সাম্যপুর বদলি পুলিশ স্টেশনের হেড কনস্টেবল সীমা ঢাকা

  • Share this:

    #দিল্লি: এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ার একমাত্র 'হিরো' সাম্যপুর বদলি পুলিশ স্টেশনের হেড কনস্টেবল সীমা ঢাকা! গত ৩ মাসে প্রায় ৭৬ জন নিখোঁজ শিশুকে খুঁজে বের করেছেন সীমা। উদ্ধার হওয়া শিশুদের মধ্যে ৫৬ জনের বয়স ১৪ বছরের নীচে। এত কম সময়ে এহেন সাফল্যের জন্য দিল্লি পুলিশ ইতিমধ্যেই পুরস্কৃত করেছে সীমাকে। গোটা দেশ স্যালুট করছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় উপচে পড়ছে সীমার দুঃসাহিক সাফল্যের প্রশংসায়।

    দিল্লি পুলিশের কমিশনার এস এন শ্রীবাস্তব শুরু করেছিলেন বিশেষ ইনসেনটিভ স্কিম, যেখানে সাফল্যের উপর ভিত্তি করে পুলিশদের সময়ের আগেই পদোন্নতি দেওয়া হয়। সীমা ঢাকা প্রথম পুলিশ যাঁর এই ইনসেনটিভ স্কিমে পদোন্নতি হল।

    প্রতি বছর দিল্লিতে অগুন্তি শিশু নিখোঁজ হয়। তাঁদের খুঁজে বের করতেই গত ৫ অগাস্ট শুরু হয় এই বিশেষ ইনসেনটিভ স্কিম, যেখানে বলা হয়, '' যদি কোনও কনস্টেবল বা হেড কনস্টেবল ১২ মাসের মধ্যে ৫০ বা তার বেশি ১৪ বছরের কম বয়সি শিশু উদ্ধার করতে পারেন (এরমধ্যে ১৫ জন শিশুর বয়স ৮ বছরের কম) তাহলে তাঁদের কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ নির্ধারিত সময়ের আগেই মিলবে প্রোমোশন।'' ১২ মাসের মধ্যে যে পুলিশ কনস্টেবল বা হেড কনস্টেবল ১৫ জন নিখোঁজ শিশু উদ্ধার করতে পারবেন, তিনি পাবেন 'অসাধারণ কার্য পুরস্কার'। মাত্র আড়াই মাসের মধ্যে দিল্লি, পঞ্জাব ও পশ্চিমবঙ্গ থেকে ৭৬ জন নিখোঁজ শিশুকে খুঁজে বের করেন সীমা ঢাকা। দিল্লি পুলিশের অতিরিক্ত জনসংযোগ আধিকারিক অনীল মিত্তল জানান, '' এই ৭৬ জন শিশুর নিখোঁজ ডায়েরি দায়ের হয়েছিল দিল্লির বিভিন্ন থানায়। মাত্রা আড়াই মাসের মধ্যে সবাইকে খুঁজে বের করেন সীমা ঢাকা।''

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Delhi Police

    পরবর্তী খবর