corona virus btn
corona virus btn
Loading

ঋণের ওপর আরও ৩ মাস লাগবে না EMI ! গ্রাহকদের এসএমএস SBI-এর

ঋণের ওপর আরও ৩ মাস লাগবে না EMI ! গ্রাহকদের এসএমএস SBI-এর

ইএমআই ৩ মাসের জন্য স্থগিত করার প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানানো হয় ৷ খুবই সহজ উপায়ে গ্রাহকেরা শুধুমাত্র একটি এসএমএসের মাধ্যমে তাঁদের লোনের ইএমআই বন্ধ করতে পারেন বলে জানিয়েছে এসবিআই ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বেড়েই চলেছে গোটা দেশে ৷ করোনা মোকাবিলায় গোটা দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন ৷ এ অবস্থায় স্বাভাবিক ভাবেই অর্থ সংকটে পড়েছে দেশের মানুষ ৷ এবার দেশের মানুষের এই বিপদের দিনে পাশে দাঁড়াল স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ৷

এর আগে সাংবাদিক বৈঠকে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গর্ভনর শক্তিকান্ত দাস জানিয়েছিলেন, দেশের ব্যাঙ্কগুলি তিন মাসের জন্য লোনের ওপর মোরাটোরিয়াম দিতে পারে ৷ মোরাটোরিয়াম’ অর্থাৎ ঋণের কিস্তি আদায় পিছিয়ে দেওয়া এবং সম্পূর্ণভাবে ঋণ মকুব করার মধ্যে বিশেষ পার্থক্য রয়েছে ৷

এরপরই এসবিআইয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, করোনার কারণে দেশের মানুষ ইতিমধ্যেই নাজেহাল৷ সেই অবস্থাকে মাথায় রেখে এসবিআই থেকে যাঁরা লোন নিয়েছেন তাঁদের জন্য  আগামী ৩ মাস ইমএমআই স্থগিত রাখা হল ৷ এর মধ্যে ব্যক্তিগত ঋণ ও গৃহঋণ অন্তর্ভুক্ত বলে জানিয়েছেন এসবিআই চেয়ারম্যান।

সম্প্রতি এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসবিআইয়ের পক্ষ থেকে গ্রাহকদের ইএমআই ৩ মাসের জন্য স্থগিত করার প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানানো হয় ৷  খুবই সহজ উপায়ে গ্রাহকেরা শুধুমাত্র একটি এসএমএসের মাধ্যমে তাঁদের লোনের ইএমআই বন্ধ করতে পারেন বলে জানিয়েছে এসবিআই  ৷

এসবিআই জানিয়েছে, ব্যাঙ্কের ৮৫ লক্ষ ঋণ গ্রহীতা যারা ইএমআই বন্ধ করানোর অনুরোধ জানিয়ে ছিলেন, তাঁদের সঙ্গে এসবিআই এসএমএসের মাধ্যমে যোগাযোগ করবে৷ এসএমএস পাওয়ার ৫ দিনের মধ্যে সেই শুধু মাত্র ভাচুর্য়াল মোবাইল নম্বর (VMN) সহযোগে YES লিখে মেসেজের উত্তর দিলেই আগামী ৩ মাসের জন্য উক্ত গ্রাহকের ইএমআই বন্ধ করা হবে ৷ সঙ্গে এসবিআই জানিয়েছে, এছাড়াও অতিরিক্ত ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল ব্যবসা চালানোর জন্য লাগলে, সম্পর্কিত শর্তাদি শিথিল করা যেতে পারে বলে আরবিআই জানিয়েছে। তবে কেউ অতিরিক্তি অর্থ নিলেও তার জন্য অ্যাসেট ক্লাসিফিকেশন ডাউনগ্রেড করা যাবে না, এই সিদ্ধান্ত একেবারেই করোনার পরিস্থিতিকে মাথায় রেখে নেওয়া হয়েছে ৷

Published by: Akash Misra
First published: May 28, 2020, 12:50 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर