• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • SANDIP CHAKRABARTY GRANDSON OF TRIPURA EX CM WROTE SONG ON MAMATA BANERJEE AKD

Tripura Song on Mamata Banerjee| ত্রিপুরার প্রাক্তন বাম মুখ্যমন্ত্রীর নাতির গানে মমতা বন্দনা! দ্রুত ছড়াচ্ছে নেটমাধ্যমে

নেটমাধ্যমে দ্রুত ছড়াচ্ছে সন্দীপ চক্রবর্তীর লেখা গান।

Tripura Song on Mamata Banerjee| সন্দীপের গানে গনসংগীতের মেজাজ, একবার শুনলে মনে হবে পুরনো আইপিটিএ-এর গান।

  • Share this:

#আগরতলা: এবার মমতার হয়ে গান বাঁধলেন ত্রিপুরার প্রাক্তন তথা প্রথম সিপিএম মুখ্যমন্ত্রী নৃপেন চক্রবর্তীর নাতি সন্দীপ চক্রবর্তী।  ইতিমধ্যেই ইউটিউবে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সেই গান। খেলা হবে -এই শব্দবন্ধ, বলা ভালো শব্দব্রক্ষ্ম গানের ছন্দে তৃণমূলের বাগানে ফুল ফুটিয়েছে বিধানসভায়, ত্রিপুরার মন পেতে এই গানও হয়ে উঠতে পারে অব্যর্থ মনে করছে তৃণমূল।  সন্দীপের গানে গনসংগীতের মেজাজ, একবার শুনলে মনে হবে পুরনো আইপিটিএ-এর গান। ইতিহাস আর বর্তমান সেখানে মিলে মিশে গিয়েছে। গানের কথা-হাতে হাত ধরে হও এক আজ, বজ্র কণ্ঠে তোলো আওয়াজ।

নৃপেন চক্রবর্তীর নাতি সন্দীপ একজন সরকারী কর্মী। দাদু সিপিএম-এর মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু তাঁর মন মজে দিদিতে। স্পষ্ট ভাষায় এদিন সন্দীপ তা বুঝিয়ে দিলেন। সরাসরি বললেন, "২০১৭ তে আমার প্রথম রাজনীতিতে আসা। তখন থেকে সবসময় দিদির পাশে আছি। একনিষ্ঠভাবে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছি।  বাংলা এবং ত্রিপুরা দুই রাজ্যজুড়েই আমার গানের মধ্য দিয়ে অথবা লেখার মধ্য দিয়ে লক্ষ লক্ষ মানুষের মাঝে পৌঁছে দিয়েছি। এবং ভবিষ্যতেও দেবো। নীরবে দলের জন্য দিদির জন্য কাজ করে যাবো, দিদিকে ভালোবেসে।" আগামী দিনে সন্দীপ যে ত্রিপুরায় তৃণমূলের সাংস্কৃতিক ফ্রন্টের অন্যতম মুখ হতে পারেন, তা তাঁর কথাবার্তাতেই পরিষ্কার।

গোটা দেশেই চর্চা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ২০২৪ এ মমতার উত্তরণ দেখা যাবে কিনা তাই নিয়ে। সন্দীপের মনে কোনও দ্বিধা নেই। স্পষ্ট বললেন, "২০২৪-এ দিল্লিকে  দিদিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখব, এটাই আমার লক্ষ্য।"

উল্লেখ্য সন্দীপ বাবুর দাদু নৃপেন চক্রবর্তী ত্রিপুরায় সিপিএম-এর বড় দায়িত্ব পালন করেছেন। ১১ বছর ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তিনি। কিন্তু দলের সঙ্গে মতবিরোধের কারণে ১৯৯৫ সালে তিনি বহিস্কৃত হন। পরে অবশ্য সিপিএম তাঁকে ফেরায়। সন্দীপ বাবুর পথ অবশ্য প্রথম থেকেই আলাদা।

২০২৪ নির্বাচনের ওয়ার্ম আপ হিসেবে ত্রিপুরাকে দেখছে তৃণমূল। প্রতিদিনই নতুন নতুন রাজনৈতিক ঘটনাপ্রবাহ সামনে আসছে। কোনও কোনও দিন আবার একাধিক চমক থাকছে। যেমন আজ। একদিকে যেমন সন্দীপ চক্রবর্তীর গান ভাইরাল তেমনই আবার তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন দেখা করেছেন  ত্রিপুরা বিজেপি-র ভাইস-প্রেসিডেন্ট অশোক দেববর্মার সঙ্গে। রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা ত্রিপুরার সংবাদ শিরোনামে থাকতে চাইছে তৃণমূল। সমাজমাধ্যম এবং সংবাদ মাধ্যম এই দুই অস্ত্র হাতিয়ার করেই ত্রিপুরাবাসীর ড্রইংরুমে সেঁধিয়ে যেতে পারলে শেষমেষ ইভিএম হাসবে, তা তৃণমূলের থেকে ভালো আর কেইবা জানে।

Published by:Arka Deb
First published: