টাকা নেই, খিদের জ্বালায় ছটফট করছে ৩ সন্তান... চুল বিক্রি করে খাবার কিনলেন স্বামীহীনা মহিলা

নিজের শেষ সম্বল, মাথার চুলটুকু বিক্রি করে ৩ সন্তানের মুখে খাবার তুলে দিলেন বছর ৩১-এর অসহায় মহিলা

নিজের শেষ সম্বল, মাথার চুলটুকু বিক্রি করে ৩ সন্তানের মুখে খাবার তুলে দিলেন বছর ৩১-এর অসহায় মহিলা

  • Share this:

    #সালেম: চুল বিক্রি করে ৩ সন্তানের মুখে খাওয়ার তুলে দিলেন স্বামীহীনা মা! সাত মাস আগে স্বামী আত্মহত্যা করেছেন, গলা পর্যন্ত ঋণে ডোবা, কাছে কানাকড়িটা পর্যন্ত নেই... এই পরিস্থিতিতে নিজের শেষ সম্বল, মাথার চুলটুকু বিক্রি করে ৩ সন্তানের মুখে খাবার তুলে দিলেন বছর ৩১-এর অসহায় মহিলা!

    গত শুক্রবার প্রেমা-র কাছে একটা নয়া পয়সাও ছিল না! এদিকে চোখের সামনে ক্ষুধার্ত ৩ সন্তান! একজনের বয়স পাঁচ, বাকি দু'জন আরও ছোট... দুই আর তিন বছর বয়স... খিদের জ্বালায় ছটফট করছে... কী করবে প্রেমা ? বাড়িতে যে খুদকুড়োটুকুও নেই... সবার কাছে সাহায্যের জন্য ছুটে যান মহিলা... হয় কিছু টাকা, নইলে কিছু খাবার.... কিন্তু নাহ! রূঢ় বাস্তবের ধাক্কা.... সবাই অসহায় বিধবার মুখের উপর দরজা আটকিয়ে দেয়... কেউ বাড়াল না সাহায্যের হাত...! সামান্য চাল দিয়েও সাহায্য করল না একাকী মহিলাকে! দিশেহারা অবস্থায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে ছিলেন প্রেমা... কী করবেন এবার ? ঠিক সেই সময়েই রাস্তা দিয়ে এক ফেরিওয়ালা পরচুলা বানানোর জন্য চুল কিনবেন বলে হেঁকে যাচ্ছিলেন! এক মুহূর্তও আর ভাবেননি প্রেমা! নিজের চুল কেটে ১৫০ টাকায় বিক্রি করলেন। ১০০ টাকা দিয়ে সন্তানদের জন্য খাবার কিনলেন, বাকি টাকা নিয়ে পাশেই একটি দোকানে কীটনাশক কিনতে যান প্রেমা।

    প্রেমার এই ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন জি বালা নামের এক গ্রাফিক ডিজাইনার। তিনি লেখেন, '' প্রেমা বিষাক্ত আরালি বীজ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। কিন্তু বোন এসে তাঁকে আটকায়।'' প্রেমার এই ঘটনার পর কেটে গিয়েছে একটা সপ্তাহ! প্রেমার ঘটনা সোশ্যাল মিডিবায় পোস্ট করেন জি বালা, এরপরই বহু শুভার্থী সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন, সংগ্রহ হয় ১ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা। বৃহস্পতিবার সালেম জেলা প্রশাসন প্রেমার মাসিক বিধবা ভাতাও মঞ্জুর করে। বালা-র এক বন্ধুর ইট ভাটায় বর্তামনে কাজ করছেন প্রেমা।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: