corona virus btn
corona virus btn
Loading

একাধিক বস্তাবন্দি পোড়া ৫০০ ও ১০০০ টাকা নোট মিলল রাস্তায়

একাধিক বস্তাবন্দি পোড়া ৫০০ ও ১০০০ টাকা নোট মিলল রাস্তায়

মোদির কালো টাকার বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বস্তাবন্দি পোড়া ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট নিলল উত্তরপ্রদেশের বরেলিতে ৷

  • Share this:

#বরেলি: নিশানায় কালো টাকা। দেশের অর্থনীতিতে আর্থিক বৃদ্ধিকে ছাপিয়ে যাচ্ছিল জাল টাকার বাড়বাড়ন্ত। অবস্থা চরমে ওঠায় কালো টাকা বন্ধে অভিযানে কেন্দ্র। কেন্দ্রের দাবি, কালো টাকা মুক্ত অর্থনীতিতে গতি পাবে উন্নয়ন। রাজ্যগুলির হাতে থাকবে বাড়তি টাকা। তাই মঙ্গলবার মাঝরাত থেকে ৫০০ ও ১০০০ টাকার বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র ৷ এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করার পর থেকেই গোটা দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়ে গিয়েছ ৷

পড়ুন

নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর রাস্তায় মিলল কয়েক কোটি ছেঁড়া নোট

মোদির কালো টাকার বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বস্তাবন্দি পোড়া ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট মিলল উত্তরপ্রদেশের বরেলিতে ৷

পড়ুন

নোট বদলাতে যাচ্ছেন ব্যাঙ্কে বা পোস্টঅফিসে ? তাহলে অবশ্যই পড়ে নিন

জানা গিয়েছে, বুধবার  সি বি গঞ্জের ইন্ডাস্ট্রিয়াল এলাকায় নোংরার স্তূপের মধ্যে বহু বস্তায় আগুন জ্বলতে দেখা যায় ৷ ওই এলাকায় অবস্থিত এক কম্পানির কর্মচারীরা বস্তাবন্দি টাকা নিয়ে এসে আগুন লাগিয়ে দেয় বলে জানা গিয়েছে ৷

পড়ুন

কাটছে না ‘জাল’ শঙ্কা, ব্যাঙ্কে ঢুকিয়ে দেওয়া হতে পারে জাল নোট

পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, প্রথমে নোটগুলি ছেঁড়া ও কাটা হয়েছে ৷ তারপর কালো টাকার প্রমাণ লোপাট করতে তাতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে ৷

পড়ুন

‘অচল’ নোট ব্যাঙ্কে জমা দিচ্ছেন? হতে পারে জরিমানা

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে নোটগুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ ৷ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের আধিকারিকদের এই বিষয়ে জানানো হয়েছে ৷

পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, পোড়ানো নোটগুলি যাচাই করা হচ্ছে ৷  খবরটি প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায় ৷

বুধবার রাস্তায় কাটা ও ছেঁড়া নোটগুলি পাওয়া যাওয়ার ঘটনা ছড়িয়ে পড়তেই চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায় ৷

জানা গিয়েছে, শহরের সবচেয়ে বড় শিল্পপতি ঘনশ্যাম খান্ডেলওয়ালের বিএল অ্যাগ্রো কারখানার সামনের রাস্তার উপর ছেঁড়া নোট পাওয়া গিয়েছে ৷

সূত্রের খবর, বেশ কয়েকজন ছেঁড়া নোটের স্ক্র্যাপে আগুন লাগানোর চেষ্টাও করেছিল কালো টাকার সমস্ত প্রমাণ লোপাট করার জন্য ৷ কিন্তু সেখানে উপস্থিত কেউ একজন তা পুলিশকে জানিয়ে দিয়েছেন ৷ কেউ আবার সেখান থেকে কিছু নোট তুলেও নিয়ে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে ৷

জাল টাকা ছড়িয়ে দেশের অর্থনীতিতে ধাক্কা দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় কালো টাকার বিরুদ্ধে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক কেন্দ্রের। সূত্রের খবর, কালো টাকার ৯৮ শতাংশই ১০০০ ও ৫০০ টাকার নোটে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। একইভাবে এই দুই নোট বাতিল করে কালো অর্থনীতিতে জোর ধাক্কা বলে মনে করা হচ্ছে ।

রাতারাতি সরকারের এই নির্দেশে যেখানে মোদির এই সিদ্ধান্তকে নজিরবিহীন বলা হচ্ছে ৷ সেখানেই হয়রানির মুখে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে ৷

First published: November 10, 2016, 11:28 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर