corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজস্থানে সংখ্যালঘু গেহলট সরকার, বিজেপি যোগের জল্পনা বাড়িয়ে দাবি পাইলট শিবিরের

রাজস্থানে সংখ্যালঘু গেহলট সরকার, বিজেপি যোগের জল্পনা বাড়িয়ে দাবি পাইলট শিবিরের
গেহলট সরকার সংখ্যালঘু, দাবি পাইলট শিবিরের৷

রাজস্থানের কংগ্রেস নেতৃত্ব জোর গলায় বলছেন, দলের সব বিধায়কই মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের উপর আস্থা প্রকাশ করেছেন৷

  • Share this:

#জয়পুর: জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার পথে হেঁটেই কি তবে সোমবারই বিজেপি-তে যোগ দিচ্ছেন সচিন পাইলট৷ নাকি ধোঁয়াশা বজায় রেখে দলের উপরে চাপ সৃষ্টি করে আরও কিছুটা সময় কিনবেন তিনি? সব মিলিয়ে সচিন পাইলটের ভবিষ্যৎ এবং রাজস্থানের কংগ্রেস সরকারের ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে৷

এ দিনই সকাল সাড়ে দশটায় সব বিধায়ককে নিয়ে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট৷ বৈঠকে সব বিধায়কের উপস্থিতি নিশ্চিত করার জন্য হুইপ জারি করা হয়েছে৷ সেই বৈঠকে পাইলট যে উপস্থিত থাকবেন না, তা স্পষ্ট৷ কারণ এখনও তিনি দিল্লিতেই ঘাঁটি গেড়ে রয়েছেন৷

একদিকে রাজস্থানের কংগ্রেস নেতৃত্ব জোর গলায় বলছেন, দলের সব বিধায়কই মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের উপর আস্থা প্রকাশ করেছেন৷ সমর্থন জানিয়ে ১০৯ জন বিধায়ক চিঠিতে সইও করেছেন, আরও কয়েকজন বিধায়ক এ দিন বৈঠকের আগেই সই করে দেবেন৷ বেশ কয়েকজন নির্দল বিধায়কের সমর্থনও গেহলটের প্রতি রয়েছে বলে দাবি করেছে কংগ্রেস৷

অন্যদিকে সচিন পাইলটের অফিস থেকে একটি বিবৃতি জারি করে দাবি করা হয়েছে, রাজস্থানে অশোক গেহলট সরকার সংখ্যালঘু হয়ে পড়েছে৷ কারণ অন্তত ৩০ জন বিধায়কের সমর্থন সচিন পাইলটের দিকে রয়েছে৷ দু'টি সর্বভারতীয় ইংরেজি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, সচিন পাইলটের মিডিয়া সচিব লোকেন্দ্র সিং এই বিবৃতি জারি করে এমনই দাবি করেছেন৷ আবার এমনও শোনা যাচ্ছে, রবিবারই দিল্লিতে বিজেপি-র সহ সভাপতি ওম মাথুরের সঙ্গে দেখা করেছেন সচিন পাইলট৷ রাজস্থানের সংকট নিয়ে এখনও বিজেপি সেভাবে সরব না হলেও পাইলটের বিজেপি যোগের সম্ভাবনা ধীরে ধীরে জোরাল হচ্ছে৷ গত দু'দিন ধরে ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছেন পাইলট৷ অনেক কংগ্রেস নেতাও তাঁর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন৷ ফলে পাইলট আর কংগ্রেসে থাকছেন কি না, সেই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে৷

পাইলটকে নিরস্ত করতে আপাতত অশোক গেহলটের সবথেকে বড় অস্ত্র তাঁর বিরুদ্ধে করা রাজস্থান পুলিশের একটি এফআইআর৷ রাজস্থানে সরকার ফেলে দেওয়ার জন্য ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়েছে রাজস্থানের উপমুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে৷ এমন কি, তাঁকে জেরা করার জন্যও ডেকে পাঠিয়েছে রাজস্থান পুলিশের বিশেষ টিম৷ এই এফআইআর নিয়েই আরও বেশি ক্ষুব্ধ পাইলট৷ রাজস্থানে কংগ্রেস সরকারের ভাগ্য এবং সচিন পাইলটের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী, তা এ দিনের মধ্যেই অনেকটা স্পষ্ট হয়ে যেতে পারে৷ কয়েক মাস আগেই

মধ্যপ্রদেশে বিজেপি-তে যোগ দিয়েছিলেন কংগ্রেসের আর এক তরুণ নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া৷ ক্ষমতা হারিয়েছিল কমল নাথ সরকার৷ রাজস্থানেও কংগ্রেসের জন্য একই চিত্রনাট্য অপেক্ষা করে আছে কি না, সেটাই এখন দেখার৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: July 13, 2020, 8:25 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर