Home /News /national /
RSS: কৃষকদের ক্ষোভ প্রশমন কীভাবে? ভোপালে দু' দিনের বৈঠকে বসছে আরএসএস-এর কৃষক সংগঠন

RSS: কৃষকদের ক্ষোভ প্রশমন কীভাবে? ভোপালে দু' দিনের বৈঠকে বসছে আরএসএস-এর কৃষক সংগঠন

কৃষক ক্ষোভ কমাতে উদ্যোগী আরএসএস৷

কৃষক ক্ষোভ কমাতে উদ্যোগী আরএসএস৷

বিজেপি ও কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে কৃষকদের ক্ষোভের আগুনে জল ঢালতে এবার পথে নামতে চলেছে রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘের (RSS) কৃষক সংগঠন ভারতীয় কিষান সংঘ।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: কৃষক আন্দোলন (Farmers Agitation) নিয়ে সমস্যায় বিজেপি (BJP)। সমাধানের পথ খুঁজতে জরুরি বৈঠকে বসছে আরএসএস-এর (RSS) কৃষক সংগঠন। উত্তর প্রদেশ ও পঞ্জাব-সহ পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনে বিজেপি-র অন্যতম মাথাব্যাথা হয়ে উঠেছে কৃষকদের বিক্ষোভ।

ন্যূনতম সহায়কমূল্য আইনি করা থেকে শুরু করে কৃষকদের নানান দাবিদাওয়া পূরণ না হওয়ার প্রতিবাদে ধারাবাহিক আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে সংযুক্ত কিষান মোর্চা। আগামী দিনেও ধারাবাহিক আন্দোলন চলবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে তারা।  ফলে কৃষকদের তীব্র অসন্তোষ আগামী দিনে বিজেপিকে রাজনৈতিকভাবে বড় বিপদে ফেলে দিতে পারে বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

আরও পড়ুন: নির্বাচনে জিতলে গরু পিছু মাসিক ৯০০ টাকা ভাতা! উত্তরপ্রদেশে ভোট টানতে মরিয়া যোগী

যে কারণে, বিজেপি ও কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে কৃষকদের ক্ষোভের আগুনে জল ঢালতে এবার পথে নামতে চলেছে রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘের কৃষক সংগঠন ভারতীয় কিষান সংঘ। দেশে কৃষকদের সমস্যা, দাবিদাওয়া নিয়ে আলোচনা করতে ২৫ থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি ভোপালে সর্বভারতীয় স্তরের সম্মেলন করতে চলেছে সংঘের এই কৃষক সংগঠন।

ভারতীয় কিষাণ সংঘের সর্বভারতীয় কার্যনির্বাহী সম্পাদক দীনেশ কুলকার্নি জানিয়েছেন, "দু' দিনের সম্মেলনে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বাধ্যতামূলক করা নিয়ে আলোচনা হবে।"

আরও পড়ুন: আজ ভোট দেবে লখিমপুর খেরি, কৃষক ক্ষোভের মুখে গড় রক্ষা হবে বিজেপি-র?

তবে তাঁদের পরামর্শ বা সুপারিশ মোদি সরকার কানে তুলবে কিনা, সে বিষয়ে সন্দিহান সংঘ নেতৃত্ব। যদিও সংঘের এই আন্দোলনকে তেমন একটা গুরুত্ব দিতে নারাজ আন্দোলনরত কৃষক সংগঠনগুলি। তাদের বক্তব্য, বিজেপি ও সংঘের এই সমস্ত আন্দোলন ও সম্মেলন পুরোটাই নাটক। সারা ভারত কৃষক সভার নেতা হান্নান মোল্লা বলেন, "রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘের পুরোটাই নাটক। ন্যূনতম সহায়ক মূল্য আইনি করা, বিদ্যুৎ বিল প্রত্যাহার করা, আন্দোলনরত কৃষকদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দবিতে আন্দোলন চলবে।"

 গত জানুয়ারিতেই সংঘের কিষান সংগঠন ন্যূনতম সহায়ক মূল্য সহ কৃষকদের দাবিদাওয়া পূরণ নিয়ে বিক্ষোভ করেছিল। তারপরেও পরিস্থিতির বদল হয়নি। তবে, সংঘ পরিবার মনে করছে, পাঁচ রাজ্যের ভোট মিটে গেলেই নূন্যতম সহায়ক মূল্য কার্যকর করতে কেন্দ্রীয় সরকারের তৈরি করা কমিটি কাজ শুরু করবে। এর আগে একাধিকবার সেকথা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: RSS

পরবর্তী খবর