৬০ মিনিটে ২০০০ রুটি! বিক্ষুব্ধ কৃষকদের খিদে মেটাতে দিল্লি সীমান্তে বসল অত্যাধুনিক চাপাটি মেশিন

৬০ মিনিটে ২০০০ রুটি! বিক্ষুব্ধ কৃষকদের খিদে মেটাতে দিল্লি সীমান্তে বসল অত্যাধুনিক চাপাটি মেশিন

দিল্লি ও সিংঘু সীমান্তে আন্দোলনরত কৃষকদের উদ্দ্যেশে বসানো হল চাপাটি মেশিন। এক ঘণ্টায় দু’হাজার রুটি বানাবে এই মেশিন।

দিল্লি ও সিংঘু সীমান্তে আন্দোলনরত কৃষকদের উদ্দ্যেশে বসানো হল চাপাটি মেশিন। এক ঘণ্টায় দু’হাজার রুটি বানাবে এই মেশিন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দিল্লি ও সিংঘু সীমান্তে আন্দোলনরত কৃষকদের উদ্দ্যেশে বসানো হল চাপাটি মেশিন। এক ঘণ্টায় দু’হাজার রুটি বানাবে এই মেশিন। নতুন কৃষিবিল প্রত্যাহারের দাবিতে দিল্লি-হরিয়ানা, সিংঘু সীমান্তে প্রায় কয়েক হাজার কৃষকেরা একজোট হয়েছেন। সরকার তাঁদের দাবি মেনে না নেওয়া পর্যন্ত এই বিক্ষোভ চলবে বলে সাফ জানিয়েছেন কিসান সংগঠনের কৃষকেরা।

    আজ পনেরো দিনের উপর হল কৃষকরা দিল্লি- টিকরি সীমান্তে তাঁবু খাটিয়ে রয়েছেন। শীতের মরসুমে যাতে একসঙ্গে কয়েক হাজার কৃষকের মুখে দু’টো গরম রুটি তুলে দেওয়া যায়, তার জন্য এ বার সেখানে বসানো হল রুটি মেশিন। সাধারণত এই মেশিন গুলি অমৃতসরের স্বর্ণমন্দির এবং গুরুদ্বার গুলোতে ব্যবহার করা হয় প্রসাদ বানানোর জন্য।

    রুটি কীভাবে বানানো হচ্ছে, সেই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই অনেকে এর প্রশংসা করেছেন। এ ছাড়াও খালসা এইড ফাউন্ডেশন চা ও স্ন্যাকের ব্যবস্থা করেছে বিক্ষুদ্ধ কৃষকদের জন্য। ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা অমরপ্রীত সিং সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, যে তারা সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনরত মহিলা কৃষকদের জন্য ওই স্থানে ২০ টি ছোট টয়লেট তৈরিচতে সাহায্য করেছে।

    ২৬ নভেম্বর থেকে হরিয়ানা, পাঞ্জাব, উত্তরপ্রদেশ এবং রাজস্থান থেকে হাজার হাজার কৃষক দেশের বিভিন্ন সীমান্তগুলিতে জড়ো হয়ে সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছেন। কেন্দ্রের সঙ্গে করা বিভিন্ন দফার বৈঠক এখনও নিষ্ফলা। কৃষকদের সঙ্গে আলোচনা না করে, সংসদে তর্কের সুযোগ না দিয়েই কৃষি বিলকে আইনে পরিণত করে ফেলেন মোদি সরকার। যার জন্য সারা দেশ জুড়ে আজ এ রকম পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এই কৃষিবিল বাতিলের দাবি একালের সবচেয়ে বড় কৃষক আন্দোলন। যা ইতিহাস গড়ল।

    Somosree Das

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: