লড়ছে মহারাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে কাঁধ মিলিয়ে, কোভিড বেড তৈরির নিরিখে বৃহত্তম পরিষেবা দিচ্ছে Reliance

লড়ছে মহারাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে কাঁধ মিলিয়ে, কোভিড বেড তৈরির নিরিখে বৃহত্তম পরিষেবা দিচ্ছে Reliance

মহারাষ্ট্র সরকার এবং বৃহণ্মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে মুম্বইয়ের নানা জায়গায় কোভিড শয্যার বন্দোবস্ত করছে Relian

মহারাষ্ট্র সরকার এবং বৃহণ্মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে মুম্বইয়ের নানা জায়গায় কোভিড শয্যার বন্দোবস্ত করছে Relian

  • Share this:

    #মুম্বই: করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গে সারা দেশ টলোমলো, কিন্তু মহারাষ্ট্রের অবস্থা বিশেষ করে শোচনীয়। রাজ্যের কঠিনতম পরিস্থিতিতে এবার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল Reliance Foundation। কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত রোগীদের সুষ্ঠু চিকিৎসা পরিষেবা প্রদানের লক্ষ্যে এই সংস্থা এবার মুম্বইতে চালু করেছে ৮৭৫টি কোভিড শয্যা, যাতে আপদকালে কাউকে চিকিৎসা পরিষেবা থেকে বঞ্চিত না হতে হয়!

    জানা গিয়েছে যে মহারাষ্ট্র সরকার এবং বৃহণ্মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে মুম্বইয়ের নানা জায়গায় কোভিড শয্যার বন্দোবস্ত করছে Reliance Foundation। সংস্থার এই উদ্যোগকে মূলত তিনটি পদক্ষেপে ভাগ করা যায়-

    স্যার এইচ এন রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন হসপিটালের সরাসরি হস্তক্ষেপ

    ১. এই হাসপাতালে ১০০টি ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট বেড প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে যা চালু হয়ে যাবে ১৫ মে থেকে।

    ২. ন্যাশনাল স্পোর্টস ক্লাব অফ ইন্ডিয়ার উদ্যোগে ৫৫০টি কোভিড শয্যা ইতিমধ্যেই চালু আছে। ১ মে থেকে সেগুলো পরিচালনা করবে স্যার এইচ এন রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন হসপিটাল।

    ৩. স্যার এইচ এন রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন হসপিটাল ৬৫০টি কোভিড শয্যা পরিচালনার খরচও বহন করবে।

    ৪. ডাক্তার, নার্স এবং নন-মেডিক্যাল প্রফেশনাল-সহ ৫০০ জনের একটি দল তৈরি করছে স্যার এইচ এন রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন হসপিটাল যাঁরা প্রতি দিন এই সব কোভিড শয্যার রোগীদের তত্ত্বাবধান করবেন।

    ৫. ন্যাশনাল স্পোর্টস ক্লাব অফ ইন্ডিয়ার পাশাপাশি সেভেন হিলস হসপিটালের কোভিড শয্যারও খরচ বহন করবে Reliance Foundation। এই দুই সংস্থায় ভর্তি রোগীদের চিকিৎসা হবে সম্পূর্ণ বিনা খরচে।

    সেভেন হিলস হসপিটালের তত্ত্বাবধান

    গত বছরেই কোভিড রোগীদের সেবা করার লক্ষ্যে সেভেন হিলস হসপিটালের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছিল Reliance Foundation। সেভেন হিলস হসপিটালে তৈরি হয়েছিল ২২৫টি কোভিড শয্যা যার মধ্যে ১০০টি সাধারণ শয়্যা এবং ২০টি ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট শয্যা সম্পূর্ণ ভাবে পরিচালিত হত Reliance Foundation-এর উদ্যোগে। এবার সেই শয্যার সংখ্যা আরও কিছুটা বাড়ল। জানা গিয়েছে যে এবার থেকে সেভেন হিলস হসপিটালে মোট ৪৫টি ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট শয্যার ব্যয়ভার বহন করবে Reliance Foundation।

    ট্রাইডেন্ট হোটেলের সঙ্গে সহাবস্থান

    বান্দ্রা কুর্লা কমপ্লেক্সের ট্রাইডেন্ট হোটেলে ১০০টি কোভিড শয্যার আয়োজন করা হয়েছে মৃদু উপসর্গ এবং উপসর্গহীন কোভিড ১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য। এই লক্ষ্যে বৃহণ্মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের গাইডলাইন মেনেই কাজ করছে সংস্থা।

    স্বাভাবিক ভাবেই রাজ্যের করোনা পরিস্থিতিতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে পেরে গর্বিত সংস্থা। এই প্রসঙ্গে Reliance Foundation-এর প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারপার্সন নীতা আম্বানি (Nita Ambani) জানিয়েছেন যে দেশসেবার প্রসঙ্গে এই সংস্থা কখনই নিজেদের কর্তব্য ভোলে না। আগামী দিনেও দেশের সেবার লক্ষ্যে বদ্ধপরিকর থাকবে Reliance Foundation!

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: