• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ঝাঁপ বন্ধ হল দেশের এক নামী ব্য়াঙ্কের! কারা কী ভাবে টাকা ফেরত পাবেন জানুন

ঝাঁপ বন্ধ হল দেশের এক নামী ব্য়াঙ্কের! কারা কী ভাবে টাকা ফেরত পাবেন জানুন

প্রয়োজনীয় মূলধনের অভাব এবং ভবিষ্যতে অর্থ উপার্জনের কোনও স্থায়ী পরিকল্পনা না থাকায় এই ব্যাঙ্কের লাইসেন্স বাতিল করা হচ্ছে বলে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে।

প্রয়োজনীয় মূলধনের অভাব এবং ভবিষ্যতে অর্থ উপার্জনের কোনও স্থায়ী পরিকল্পনা না থাকায় এই ব্যাঙ্কের লাইসেন্স বাতিল করা হচ্ছে বলে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে।

প্রয়োজনীয় মূলধনের অভাব এবং ভবিষ্যতে অর্থ উপার্জনের কোনও স্থায়ী পরিকল্পনা না থাকায় এই ব্যাঙ্কের লাইসেন্স বাতিল করা হচ্ছে বলে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে।

  • Share this:

    #মুম্বই: মঙ্গলবার রিজার্ভ ব্য়াঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার তরফে বন্ধ করে দেওয়া হল মহারাষ্ট্রের করদ জনতা সহকারী ব্যাঙ্কের সমস্ত শাখা। প্রয়োজনীয় মূলধনের অভাব এবং ভবিষ্যতে অর্থ উপার্জনের কোনও স্থায়ী পরিকল্পনা না থাকায় এই ব্যাঙ্কের লাইসেন্স বাতিল করা হচ্ছে বলে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে।

    আরবিআই বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, ৯৯ শতাংশের বেশি ব্যাঙ্ক গ্রাহক ডিপোজিট ইনসিওরেন্স এবং ক্রেডিট গ্যারেন্টি করপোরেশনের তরফে টাকা ফেরত পাবে। লাইসেন্স বাতিল করার পাশাপাশি গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেওয়ার কাজেও হাত লাগানো হয়েছে। সেক্ষেত্রে ডিপোজিট ইনসিওরেন্স এবং ক্রেডিট গ্যারেন্টি কর্পোরেশনের তরফে পাঁচ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ফেরানো হবে। তবে ব্যঙ্কের হাতে কার্যত আর কোনও ক্ষমতাই থাকছে না, ৭ ডিসেম্বর কাজের সময়ের পর থেকে বাধ্যত অসক্রিয়ই থাকবে এই ব্যাঙ্ক।

    এই ব্য়ঙ্ককে ব্যবসা গুটিয়ে ফেলার কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্যে কর্পোরেশন কমিশনার এবং রেজিস্টার কো অপারেটিভ সোসাইটির পক্ষ থেকে লোক নিয়োগ করতে বলা হয়েছে। আরবিআই তাদের রিপোর্টে স্পষ্ট লিখেছে, ব্যাঙ্ক রেগুলেশন অ্যাক্ট ১৯৪৯ অনুযায়ী ব্যাঙ্কের হাতে যে ন্যূনতম মূলধন থাকা উচিত তা নেই। পাশাপাশি ভবিষ্যতে তা রোজগার করারও সম্ভাবনা নেই। সেক্ষেত্রে এই ব্যাঙ্ক চালিয়ে নিয়ে যাওয়া জনস্বার্থে আঘাত হানার শামিল। সেই কারণেই সবদিক বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

    Published by:Arka Deb
    First published: