শুক্রবার রাতের মধ্যে টাকা মেটাতে কেন্দ্রের চরম নির্দেশ টেলি সংস্থাগুলিকে

শুক্রবার রাতের মধ্যে টাকা মেটাতে কেন্দ্রের চরম নির্দেশ টেলি সংস্থাগুলিকে

সুপ্রিম কোর্টের কড়া বার্তাতেই বকেয়া টাকা উদ্ধারের জন্য চূড়ান্ত নির্দেশ দিল কেন্দ্রের টেলি যোগাযোগ মন্ত্রক৷

  • Share this:

#নয়া দিল্লি: সুপ্রিম কোর্টের কড়া বার্তাতেই বকেয়া টাকা উদ্ধারের জন্য চূড়ান্ত নির্দেশ দিল কেন্দ্রের টেলি যোগাযোগ মন্ত্রক৷ ভারতী এয়ারটেল, ভোডাফোনের মতো একাধিক সংস্থাকে শুক্রবার রাত ১১.৫৯ মিনিটের মধ্যে বকেয়া টাকা মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ উল্লেখ্য, ১৫টি সংস্থার থেকে সরকারের বকেয়া টাকার পরিমাণ মোট ১.৪৭ লক্ষ কোটি টাকা৷ যার মধ্যে ৯২,৬৪২ কোটি টাকা বয়েকা রয়েছে লাইসেন্স ফি হিসাবে৷ এছাড়া ৫৫,০৫৪ কোটি টাকা বাকি রয়েছে স্পেক্ট্রাম ইউসেজ চার্জ হিসাবে৷ যদিও শুক্রবার রাতের মধ্যে সরকারের তরফে কত টাকা চাওয়া হয়েছে, সেটা এখনও স্পষ্ট নয়৷ তবে বকেয়া হিসাবে ভোডাফোন আইডিয়ার ৫৩ হাজার কোটি টাকা, এয়ারটেলের ৩৫,৫০০ কোটি টাকা ও টাটা টেলিসার্ভিসের ১৪ হাজার কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে৷ সেই টাকার একটা বড় অংশ যে ফেরাতেই হবে, তা স্পষ্ট৷ এই নির্দেশের পরেই এয়ারটেলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আগামী ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ১০ হাজার কোটি টাকা দিয়ে দেওয়া হবে৷ বাকি টাকা ১৭ মার্চের আগে দেওয়া হবে৷ এদিন সন্ধ্যার পর থেকেই টেলি যোগাযোগ মন্ত্রকের তরফে সার্কেল বা জোন ভিত্তিক ডিমান্ড নোটিস পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ উত্তর প্রদেশ পশ্চিমের টেলিকম সার্কেলের জারি করা নোটিসেও একই নির্দেশ দেখা গিয়েছে৷ টেলিকম সংস্থার এক উচ্চপদস্থ কর্মী নাম না করে জানিয়েছেন, নোটিস এসেছে৷ সেখানে টেলিকম মন্ত্রক টাকা  জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে৷ আদালত এর আগে কেন্দ্রীয় টেলিকম মন্ত্রককে নির্দেশ দিয়েছিল, সংস্থাগুলি যাতে দ্রুত বকেয়া টাকা ফেরত দেয়, তার ব্যবস্থা করতে৷ একবারে অত পরিমাণ টাকা ফেরাতে না পারলেও একটা বড় অঙ্কের টাকা প্রথমে মিটিয়ে দিতে৷ এবং সেই সংস্থার ডিরেক্টর পদস্থ আধিকারিকদের এটা জানাতে যে কেন নির্দিষ্ট দিনের মধ্যে টাকা দিতে পারল না সংস্থাগুলি৷

First published: February 14, 2020, 7:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर