• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • এই প্রথম গ্লোবাল টিচার অ্যাওয়ার্ড পেলেন এক ভারতীয়, পেলেন ৭ কোটি টাকা!

এই প্রথম গ্লোবাল টিচার অ্যাওয়ার্ড পেলেন এক ভারতীয়, পেলেন ৭ কোটি টাকা!

ফাইনালিস্টদের মধ্যে নিজের পুরস্কারের অর্থ ভাগ করে নেবে বলে স্থির করেছেন তিনি ।

ফাইনালিস্টদের মধ্যে নিজের পুরস্কারের অর্থ ভাগ করে নেবে বলে স্থির করেছেন তিনি ।

ফাইনালিস্টদের মধ্যে নিজের পুরস্কারের অর্থ ভাগ করে নেবে বলে স্থির করেছেন তিনি ।

  • Share this:

    #মহারাষ্ট্র: এই প্রথম কোনও ভারতীয়ের হাতে উঠল এই অ্যাওয়ার্ডের সম্মান । মহারাষ্ট্রের শোলাপুরের শিক্ষক রনজিতসিন দিসালে সম্প্রতি এই সম্মানে ভূষিত হয়েছেন । মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগৎ সিং কেশিয়ারি নিজে অভিনন্দন জানিয়েছেন দিসালেকে । একটি অভিনন্দন বার্তায় তিনি লিখেছেন, ‘‘রনজিতসিন দিসালেকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই লন্ডনের বার্কলে ফাউন্ডেশনের তরফে গ্লোবাল টিচার অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার জন্য । দিসালে নারী শিক্ষা এবং শিক্ষায় QR code-এর ব্যবহার নিয়ে অবিস্মরণীয় কাজ করে এবং তাঁর উদ্ভাবনী শক্তি দিয়ে প্রত্যন্ত এলাকার ছাত্রছাত্রীদের জ্ঞানের আলো দেখিয়ে এই অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন ।’’

    ৩২ বছরের রনজিতসিন দিসালে মহারাষ্ট্রের সোলাপুর জেলার পরিতেওয়াডির জেপি স্কুলের শিক্ষক । তাঁর এই সম্মানপ্রাপ্তিতে রনজিতসিনকে অভিনন্দন জানিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকারও । এই অ্যাওয়ার্ডে পুরস্কার হিসাবে ১ মিলিয়ন ডলার পেয়েছেন তিনি । অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ৭ কোটি টাকা ।

    এই প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ১৪০টি দেশ থেকে প্রায় ১২ হাজার শিক্ষক-শিক্ষিকা অংশগ্রহণ করেছিলেন । ফাইনালে উঠেছিলেন মোট ১০ জন । তার মধ্যে রনজিতসিন প্রথম স্থান অধিকার করেন । তবে দিসালে স্থির করেছেন তাঁর পুরস্কারের অর্থের ৫০ শতাংশ তিনি ফাইনালে ওঠা বাকি ৯ জনের মধ্যে সমানভাবে ভাগ করে দেবেন । যাতে ওই শিক্ষক-শিক্ষিকারাও তাঁদের দেশের শিক্ষার প্রয়োজনে তা ব্যবহার করতে পারেন ।

    পুরস্কার পেয়ে দিসালে বলছে, ‘‘শিক্ষকই হল আসল পরিবর্তনকারী... যে তাঁর ছাত্রছাত্রীর জীবনকে পরিবর্তন করে চক আর চ্যালেঞ্জের মিশ্রণের মধ্য দিয়ে । তাঁরা সবসময় দেওয়া আর ভাগ করে নেওয়ায় বিশ্বাস করে । আমা্র পুরস্কারের অর্থ ফাইনালিস্টদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পেরে আমি খুব খুশি ও গর্বিত । আমি তাঁদের অক্লান্ত পরিশ্রম, তাঁদের বিশ্বাস, তাঁদের কাজকে সমর্থন করি । আমি জানি, আমরাই একসঙ্গে এই পৃথিবীতে পরিবর্তন আনতে পারব । কারণ ভাগ করে নিলে তবেই তো সমৃদ্ধ হব ।’’

    Published by:Simli Raha
    First published: