Lockdown: লকডাউনে পথে নামা পরিযায়ী শ্রমিকদের হাতে টাকা দেওয়া হোক, আর্জি রাহুলের

Lockdown: লকডাউনে পথে নামা পরিযায়ী শ্রমিকদের হাতে টাকা দেওয়া হোক, আর্জি রাহুলের

পরিযায়ী শ্রমিকদের হয়ে সওয়াল রাহুল গান্ধির। ফাইল চিত্র

সরাসরি পরিযায়ী শ্রমিকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা দেওয়ার আবেদন জানালেন রাহুল গান্ধি।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে (Coronavirus Second Wave) দেশজুড়ে উদ্বেগের ছায়া। গত ২৪ ঘণ্টায় ফের রেকর্ড ভেঙে দেশে করোনা আক্রান্তের (COVID 19 Positive) সংখ্যা পেরিয়েছে ২ লক্ষ ৫৯ হাজার। রাজধানীতে নতুন করে আক্রান্ত (Delhi Corona Update)২৩ হাজারেরও বেশি মানুষ, মহারাষ্ট্রে সংখ্যাটা ৫৮ হাজার ছাড়িয়েছে। পরিস্থিতি মাথায় রেখেই দিল্লি-সহ (Delhi) উত্তরপ্রদেশ (UttarPradesh), রাজস্থান (Rajasthan), পঞ্জাবে (Punjab) লকডাউন (Lockdown) জারি হয়েছে। ফলে আরও একবার পথে পরিযায়ী শ্রমিকেরা। দিল্লির আনন্দবিহার বাসস্ট্যান্ডের ছবিটা বলে দিচ্ছে আরও একবার অগ্নিপরীক্ষার সামনে পড়তে চলেছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। আরও একবার তাদের হয়ে সুর চড়ালেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি। সরাসরি তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা দেওয়ার আবেদন জানালেন রাহুল।

    এদিন ট্যুইটারে রাহুল গান্ধি লিখেছেন, "ফের রাস্তায় পরিযায়ী শ্রমিকরা। এই অবস্থায় কেন্দ্রের কর্তব্য তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা দেওয়া।"

    কর্তব্য স্মরণ করিয়ে দিলেও অবশ্য দোলাচলের কথাও জানাতে ভুলছেন না রাহুল। তাঁর কথায়, "কিন্তু করোনা ছড়ানোর জন্য জনতার দিকেই দোষারোপের আঙুল তোলা কেন্দ্র কি আদৌ এই ধরনের জনসহায়তা করবে? "

    প্রসঙ্গত করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই পশ্চিমবঙ্গে প্রচার পরিকল্পনাও বাতিল করেছেন রাহুল গান্ধি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ তাঁর সিদ্ধান্তকে কটাক্ষ করে বলেছেন, হার নিশ্চিত বুঝেই প্রচার বাতিল করেছেন রাহুল।

    গত বছর মার্চ মাসে কয়েক ঘণ্টার লকডাউন জারি হয়। সেই সময়ে রাস্তায় পরিযায়ী শ্রমিকের ঢল নামে। গণযোগাযোগ বন্ধ হওয়ায় এক কথায় অকুলপাথারে পড়েন তারা। পথেই প্রাণ যায় বহু মানুষের। এই পরিস্থিতি এবার এড়াতে চায় প্রতিটি রাজ্যই।

    তাই লক‌ডাউন ঘোষণার পাশাপাশি পরিযায়ী শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে এবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বার্তা দেন, দয়া করে দিল্লি ছেড়ে কেউ যাবেন না। যেতে আসতে সময় ও টাকা নষ্ট হবে। আমি আশ্বস্ত করছি এ রাজ্যে আপনাদের কোনও সমস্যা হবে না। যদিও এ হেন আশ্বাসবাণীর পরেও বহু মানুষই বাসে করে ঘরমুখী হতে লাইনে দাঁড়িয়েছেন।

    Published by:Arka Deb
    First published: