corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাহুলের 'মন্তব্যে' কংগ্রেসের বৈঠকে ঝড়, ইস্তফা দিতে চাইলেন গুলাম নবি আজাদ

রাহুলের 'মন্তব্যে' কংগ্রেসের বৈঠকে ঝড়, ইস্তফা দিতে চাইলেন গুলাম নবি আজাদ
রাহুল গান্ধিকে দলের সভাপতি চান কংগ্রেস নেতাদের একটা বড় অংশ৷

এই চিঠিকে কেন্দ্র করেই এ দিন কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি কার্যত বিভক্ত হয়ে যায়৷ মনমোহন সিং, এ কে অ্যান্টনির মতো নেতারা সনিয়াকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেন৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: রাহুল গান্ধির মন্তব্য ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠল কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক৷ বেশ কয়েকটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, নেতৃত্বে বদল চেয়ে চিঠি দেওয়ার জন্য দলের বেশ কিছু সিনিয়র নেতাকে কাঠগড়ায় তোলেন রাহুল গান্ধি৷ এমনকী, তাঁদের বিরুদ্ধে বিজেপি-র সঙ্গে যোগসাজশের গুরুতর অভিযোগ তোলেন তিনি৷

সূত্রের খবর অনুযায়ী, রাহুলের এই মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেন গুলাম নবি আজাদ, কপিল সিব্বলের মতো প্রবীণ নেতারা৷ গুলাম নবি আজাদ পদত্যাগ করার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন বলেও খবর৷ রাহুলের মন্তব্যের প্রতিবাদ করে ট্যুইট করেন কপিল সিব্বল৷ পরিস্থিতি গুরুতর আকার ধারণ করায় আসরে নামেন কংগ্রেস নেতা রণদীপ সুরজেওয়ালা৷ পাল্টা ট্যুইট করে তিনি সিব্বলকে বলেন, রাহুল গান্ধি এমন কিছুই বলেননি৷ সংবাদমাধ্যম তাঁর মুখে এ কথা বসাচ্ছে৷

এর কিছুক্ষণ পরই নিজের ট্যুইট প্রত্যাহার করে নেন সিব্বল৷ নতুন ট্যুইটে তিনি দাবি করেন, রাহুল গান্ধি ব্যক্তিগত ভাবে তাঁকে জানিয়েছেন যে বিজেপি-র সঙ্গে যোগসাজশ নিয়ে দলের নেতাদের সম্পর্কে কোনও মন্তব্য তিনি করেননি৷ গোটাটাই রটিয়েছে সংবাদমাধ্যম৷

সূত্রের খবর অনুযায়ী, এ দিনের ভার্চুয়াল বৈঠকের শুরুতেই পদত্যাগের ইচ্ছেপ্রকাশ করেন দলের অন্তর্বর্তী সভানেত্রী সনিয়া গান্ধি৷ নতুন সভাপতি বেছে নেওয়ার জন্য দলের ওয়ার্কিং কমিটিকে নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু করারও অনুরোধ করেন তিনি৷ যদিও সনিয়াকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং৷

সূত্রের খবর, এ দিন সনিয়া গান্ধি ইস্তফা দেওয়ার ইচ্ছেপ্রকাশের পরই নেতৃত্বে বদল চেয়ে চিঠি দেওয়া নেতাদের আক্রমণ করেন রাহুল৷ ওই নেতাদের মধ্যে ছিলেন গুলাম নবি আজাদ, কপিল সিব্বলরা৷ রাহুল পাল্টা প্রশ্ন করেন, কংগ্রেস যখন সবথেকে খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে এবং রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশে সঙ্কটের মধ্যে পড়েছে দল, তখন কার স্বার্থে এ ভাবে নেতৃত্বে বদল চেয়ে চিঠি দেওয়া হল? সনিয়া গান্ধি অসুস্থ থাকাকালীনও কেন এই চিঠি, সেই প্রশ্নও তোলেন তিনি৷ রাহুলের দাবি, এই চিঠি পেয়ে সনিয়া মানসিক আঘাতও পেয়েছেন৷

সূত্রের খবর, রাহুলের এই বেনজির আক্রমণের পরই গুলাম নবি আজাদ পাল্টা বলেন, বিজেপি-র হয়ে কাজ করার অভিযোগ প্রমাণিত হলে তিনি ইস্তফা দেবেন৷ বৈঠকের মাঝপথেই রাহুলের মন্তব্যে ক্ষোভপ্রকাশ করে ট্যুইট করেন কপিল সিব্বল৷

এই চিঠিকে কেন্দ্র করেই এ দিন কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি কার্যত বিভক্ত হয়ে যায়৷ মনমোহন সিং, এ কে অ্যান্টনির মতো নেতারা সনিয়াকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেন৷ প্রাক্তন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী এ কে অ্যান্টনি বলেন, চিঠি পাঠানোর থেকেও চিঠির বয়ান বেশি নিষ্ঠুর৷ অ্যান্টনি অবশ্য রাহুলকে দলের রাশ হাতে নিতে অনুরোধ করেন৷ কংগ্রেস নেতা আহমেদ পটেলও রাহুলকে একই অনুরোধ করেছেন বলে খবর৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: August 24, 2020, 3:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर