আবর্জনা কুড়িয়ে জমিয়ে ফেললেন ১০ লক্ষ টাকা, তারপর নিজের স্বপ্নপূরণ যেভাবে হল...

আবর্জনা কুড়িয়ে জমিয়ে ফেললেন ১০ লক্ষ টাকা, তারপর নিজের স্বপ্নপূরণ যেভাবে হল...
২০ বছর ধরে আবর্জনা বাছাই করেছিলেন এবং কিছু অর্থ সাশ্রয়ের পরে ১০ লক্ষ টাকা সংগ্রহ করেছিলেন। এর পরে, তিনি নিজেই গ্রামে জমি কিনেছিলেন এবং তার মধ্যে তার ৫ ফুট পাথরের মূর্তিটি রেখেছিলেন।

২০ বছর ধরে আবর্জনা বাছাই করেছিলেন এবং কিছু অর্থ সাশ্রয়ের পরে ১০ লক্ষ টাকা সংগ্রহ করেছিলেন। এর পরে, তিনি নিজেই গ্রামে জমি কিনেছিলেন এবং তার মধ্যে তার ৫ ফুট পাথরের মূর্তিটি রেখেছিলেন।

  • Share this:

    #চেন্নাই: কথিত আছে যিনি স্বপ্ন দেখেন, তাঁর স্বপ্ন একদিন পূরণ হয়। তামিলনাড়ুর সালেম জেলার আটানুপট্টি গ্রামে বসবাসকারী ৬০ বছর বয়সী এ নাল্লাতম্বিও স্বপ্ন দেখতেন। তবে খারাপ পরিস্থিতিতে পড়ে তিনি বাধ্য হয়ে গত ২০ বছর ধরে আবর্জনা বাছাইয়ের কাজ করছেন। নাল্লাতম্বীর স্বপ্ন ছিল নিজের একটি মূর্তি তৈরি করে বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরবেন। নাল্লাতম্বীর স্বপ্ন এখন পূরণ হয়েছে! নিজের মূর্তিও গড়েছেন তিনি!

    গত ২০ বছর ধরে আবর্জনা বাছাই করে ধীরেধীরে কিছু অর্থ সাশ্রয় করতে থাকেন তামিলনাড়ুর সালেম জেলার নাল্লাতম্বী৷ দীর্ঘ ২০ বছর ধরে এই কাজ করে তিনি ১০ লক্ষ টাকা জমিয়ে ফেলেন। এর পরে, তিনি নিজেই গ্রামে জমি কেনেন এবং তার মধ্যে তার ৫ ফুট পাথরের মূর্তিটি তৈরি করেন৷ নাল্লাতম্বী বলেন যে, তিনি যখন খুব ছোট ছিলেন তখন তাঁর অনেক স্বপ্ন ছিল সুনাম অর্জন করার৷ তিনি মনে মনে স্বপ্ন দেখতেন তাঁর বিশ্বজোড়া খ্যাতির এবং সেই সঙ্গে মনীষীদের মূর্তির পাশেই থাকেব তার মূর্তি৷ নাল্লাতম্বী প্রথমে রাজমিস্ত্রি হিসাবে কাজ করতেন, কিন্তু বিশ বছর আগে বাড়িতে ঝগড়ার পরে তিনি বাড়ি থেকে আলাদা হয়ে যান।

    নাল্লাতম্বীর বাড়ি ছেড়ে চলে গেলেও কিন্তু তার স্বপ্ন তাকে ছেড়ে যায়নি। দিন-রাত এক করে নল্লাতম্বি অর্থ সাশ্রয় করেছিলেন এবং ৬০ বছর বয়সে তিনি প্রায় ১০ লক্ষ টাকা সংগ্রহ করেছিলেন। এই ১০ লক্ষ টাকার মধ্যে তিনি ওয়াজপাডি-বেলুড় গ্রামের রাস্তায় দুটি প্লট (১২০০ বর্গফুট) কিনেছিলেন। এর পরে তিনি এক লাখ টাকা দিয়ে স্থানীয় ভাস্করকে দিয়ে একটি মূর্তি তৈরি করেছিলেন এবং একই নিজের কেনা জমিতে সেই মূর্তিটি বসেন। আবর্জনা বাছাইয়ের কাজ করে তিনি প্রতিদিন ৩০০ টাকা পর্যন্ত আয় করতেন।


    Published by:Pooja Basu
    First published:

    লেটেস্ট খবর