corona virus btn
corona virus btn
Loading

বুধবার উল্টোরথ, মঙ্গলবার রাত থেকে কারফিউ পুরীতে, শুক্রবার অধরপানা

বুধবার উল্টোরথ, মঙ্গলবার রাত থেকে কারফিউ পুরীতে, শুক্রবার অধরপানা
File Photo

রথযাত্রার মত করেই উল্টোরথেও পুরীতে কড়া সর্তকতা জারি করেছে ওড়িশা সরকার।

  • Share this:

#কলকাতা: বুধবার উল্টোরথ। মহাপ্রভু জগন্নাথ দেবের বাড়ি ফেরার পালা। গুন্ডিচা মন্দির থেকে মহাপ্রভু যাত্রা করবেন পুরীর মন্দিরের উদ্দেশ্যে। রথযাত্রার মত করেই উল্টোরথেও পুরীতে কড়া সর্তকতা জারি করেছে ওড়িশা সরকার।

মঙ্গলবার রাত ১০ টা থেকে ফের কারফিউ জারি হয়ে যাবে সৈকত নগরীতে। উল্টোরথ উপলক্ষে ২ জুলাই ( বৃহস্পতিবার) রাত ১০টা পর্যন্ত কারফিউ জারি থাকবে মন্দির লাগোয়া অঞ্চলে। রথ যাত্রার মতো করেই উল্টো রথেও ভক্তদের সমাবেশে কঠোরভাবে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ২ জুলাই থেকে ৪ জুলাই পর্যন্ত ১৪৪ ধারা বলবৎ থাকবে পুরীতে। বুধবার সকাল আটটা নাগাদ মাসির বাড়ি অর্থাৎ গুন্ডিচা মন্দির থেকে বার করে এনে মহাপ্রভু জগন্নাথকে রথে তোলা হবে। তারপর বিভিন্ন আচার পর্ব মিটিয়ে জগন্নাথ দেবের রথ পুরীর মন্দিরের উদ্দেশ্যে রওনা দেবে বেলা বারোটা নাগাদ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সোনার বেশ পড়ানো হবে মহাপ্রভুকে। শুক্রবার রীতি মেনেই হবে মহাপ্রভুর ভোগ প্রদান ও অধরপানা। ভক্তকুলের বিশ্বাস, অধরপানা পর্ব মিটলেই দেশ জুড়ে করোনার প্রকোপ কমতে শুরু করবে। শনিবার পুরীর মন্দিরে প্রবেশ করবেন মহাপ্রভু জগন্নাথ দেব।

অন্যবার রথযাত্রা ও উল্টো রথকে কেন্দ্র করে লক্ষ লক্ষ ভক্তের সমাবেশ ঘটে পুরীতে। সৈকত নগরীতে জায়গা পাওয়াটাই কঠিন হয়ে পড়ে। কোভিড পরিস্থিতির জন্য এবার ছবিটা একেবারে অন্য। উড়িষ্যা সরকার চরম সতর্কতার সঙ্গে রথযাত্রা উৎসব পালন করছে। বাইরের রাজ্য বা ওড়িশার অন্য জায়গা থেকে ভক্তদের যাতায়াতের ওপর জারি করা হয়েছে করা কড়া নিষেধাজ্ঞা।

উল্টোরথে রথের রশি টানা জন্য মন্দির সোসাইটির পক্ষ থেকে দেড় হাজার সেবাইতকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। উল্টোরথে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক সেবাইতের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। রথ টানার সময় মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। পুরীর জগন্নাথ দেবের মন্দিরের পক্ষ থেকে রাজেশ দৈতাপতি জানান,"মহাপ্রভুর রথযাত্রা ও সব রকম রীতি-আচার সম্পূর্ণ হলেই করোনার প্রকোপ কমবে ভারতে।"পুরীর মন্দিরের দৈতাপতি নিয়োগ কমিটির সভাপতি রবীন্দ্র দাস মহাপাত্র জানান,"ভক্তদের দর্শন দিতেই মহাপ্রভু মন্দির থেকে বেরিয়ে আসেন। এই বছরটা কোভিড পরিস্থিতির জন্য কোন কিছু সম্ভব হল না। আমরা দুঃখিত।"আগামী বছর মহাপ্রভু জগন্নাথ দেবের আশীর্বাদে সবটাই স্বমহিমায় ফিরবে বলেই আশা পুরীর মন্দির সোসাইটির।

PARADIP GHOSH 

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: June 30, 2020, 11:58 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर