• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ‘সরকারকে কাজ ও তদন্ত করতে দিন’, পিএনবি মামলায় হস্তক্ষেপের আর্জি খারিজ শীর্ষ আদালতের

‘সরকারকে কাজ ও তদন্ত করতে দিন’, পিএনবি মামলায় হস্তক্ষেপের আর্জি খারিজ শীর্ষ আদালতের

File photo of Punjab National Bank.

File photo of Punjab National Bank.

‘সরকারকে কাজ ও তদন্ত করতে দিন’, পিএনবি মামলায় হস্তক্ষেপের আর্জি খারিজ শীর্ষ আদালতের

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: পিএনবি কেলেঙ্কারি নিয়ে সরকারকে তদন্ত করতে দিন। এখনই এনিয়ে আদালতের কিছু করার নেই। এক জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে একথাই বলল সুপ্রিমকোর্ট। প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন বেঞ্চের বক্তব্য, সরকার যদি তার কাজ এবং তদন্ত ঠিকঠাক না করে তখন আদালত ভেবে দেখবে এব্যাপারে হস্তক্ষেপ করবে কি না।

    পিএনবি কেলেঙ্কারি নিয়ে তদন্ত করছে সিবিআই এবং ইডি। কিন্তু এই তদন্তে কি সত্যি বেরিয়ে আসবে? দাবি ওঠে, সিট গঠন করে দেশের সবচেয়ে বড় ব্যাঙ্ক জালিয়াতির তদন্ত করা হোক। কার্যত সিবিআই-এর ওপর অনাস্থা প্রকাশ করেই শীর্ষ আদালতে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন আইনজীবী বিনীত ধান্দা। জনস্বার্থ মামলার বিরোধিতা করে আদালতে অ্যাটর্নি জেনারেল কে কে ভেনুগোপাল বলেন,

    ‘তদন্ত চলছে। একাধিক এফআইআর দায়ের হয়েছে। গোটা প্রক্রিয়াই চালু রয়েছে।’

    অ্যাটর্নি জেনারেলের এই বক্তব্যকে সমর্থন করেন বিচারপতিরা। প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধান বেঞ্চ জানায়,

    ‘সরকারকে কাজ ও তদন্ত করতে দিন। যদি তারা কিছু না করে তবে তা অন্য বিষয়। তখন আমরা সিদ্ধান্ত নেব হস্তক্ষেপ করব কি করব না।’

    প্রাথমিক ধাক্কা সামলে মামলাকারী আইনজীবী ধান্দা আর্জি জানান, তদন্ত কোন পথে চলছে, কী অবস্থায় রয়েছে তা নিয়ে স্ট্যাটাস রিপোর্ট জমা দেওয়ার জন্য সরকারকে নোটিস জারি করুক আদালত। মামলাকারীর এই আর্জিও খারিজ করেছেন বিচারপতিরা। আদালত জানায়, অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতে উপস্থিত থেকে আবেদনের বিরোধিতা করছেন। ফলে সরকারকে কোনওরকম নোটিস জারি করার প্রয়োজন নেই। কিন্তু তারপরও নিজের বক্তব্যে অনড় থাকায় এদিন মামলাকারীকে আদালতের ভর্ৎসনার মুখেও পড়তে হয়। মনোরঞ্জন এবং জনপ্রিয়তার জন্যই কি এই জনস্বার্থ মামলা? প্রশ্ন তোলেন বিচারপতিরা।

    First published: