#AyodhyaVerdict: দেখে নিন কোন ৫ বিচারপতি আজ অযোধ্যা মামলায় ঐতিহাসিক রায় দেবেন

২৬ বছর আইনি যুদ্ধ। শুধু সুপ্রিম কোর্টেই মামলা চলছে ৮ বছর ৫ মাস ১২৩ দিন ধরে। অবশেষে অযোধ্যা জমি নিয়ে আজ চূড়ান্ত আইনি রায়।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Nov 09, 2019 10:29 AM IST
#AyodhyaVerdict: দেখে নিন কোন ৫ বিচারপতি আজ অযোধ্যা মামলায় ঐতিহাসিক রায় দেবেন
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Nov 09, 2019 10:29 AM IST

#নয়াদিল্লি: অযোধ্যা রায় সব অর্থেই নজিরবিহীন। ২৬ বছরের পুরনো মামলায় চূড়ান্ত আইনি নিষ্পত্তি। গত ৬ মাসে নজিরবিহীন ত‍ৎপরতায় শুনানি করে সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর কী সাত দশকের পুরনো বিতর্কের পাকাপাকি সমাধান?

২৬ বছর আইনি যুদ্ধ। শুধু সুপ্রিম কোর্টেই মামলা চলছে ৮ বছর ৫ মাস ১২৩ দিন ধরে। অবশেষে অযোধ্যা জমি নিয়ে আজ চূড়ান্ত আইনি রায়। একেবারে শেষ পর্যায়ে টানা ৪০ দিন ধরে শুনানি চলে।

Supreme-Court-of-India-2

এই রায়ের শুনানি পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চে হয়েছে ৷ প্রধান বিচারপতি ছিলেন রঞ্জন গগৈ ৷ গগৈ ছাড়া বেঞ্চে ছিলেন Justice Sharad Arvind Bobde, Justice Ashok Bhushan, Justice S. Abdul Nazeer, Dr. Justice D.Y. Chandrachur ৷

cji-ranjan-gogoi-2

Loading...

শুনানির আগে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ জানিয়েছিলেন, এই মামলা রাজনৈতিক স্তরে সংবেদনশীল ৷ ফলে তিন বিচারপতির বেঞ্চ এর শুনানি করবে না ৷ এরপরই পাঁচ বিচরপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ গঠন করা হয় ৷ দেখে নিন বেঞ্চে কারা কারা ছিলেন ৷

প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ: সু্প্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এই বেঞ্চে সামিল রয়েছেন ৷ তিনি দেশের ৪৬ তম প্রধান বিচারপতি ৷ ১৮ নভেম্বর ১৯৫৪ সালে ডিব্রুগড়ের ডন বস্কো স্কুল থেকে পাস করে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট স্টিফেন্স কলেজে ইতিহাস নিয়ে পড়াশোনা করেছেন ৷ ১৯৭৮ সালে গুয়াহাটি হাইকোর্টে প্র্যাক্টিস শুরু করেন ৷ ২০০১ সালে গুয়াহাটি হাইকোর্টের বিচারপতি হন ৷ এরপর ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১১ পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি নিযুক্ত হন ৷ ২০১২ সালে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি করা হয় গগৈকে ৷

Dr. Justice D.Y. Chandrachur: বিচারপতি চন্দ্রচুড় ১৩ মে ২০১৬ সালে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত করা হয় ৷ এর আগে ২০১৩ সালে এলাহাবাদ হাইকোর্টের চিফ জাস্টিস ছিলেন তিনি ৷ এবং বম্বে হাইকোর্টেরও বিচারপতি ছিলেন তিনি ৷ এর পাশাপাশি চন্দ্রচুড় মহারাষ্ট্র জুডিশিয়াল অ্যাকাডেমির নির্দেশক ছিলেন ৷

Justice Sharad Arvind Bobde: ২৪ এপ্রিল ১৯৫৬ নাগপুরে জন্ম ৷ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হওয়ার পাশাপাশি মুম্বই ও মহারাষ্ট্র ন্যাশনাল ল ইউনিভার্সিটির Chancellor ছিলেন তিনি ৷ এর আগে মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ছিলেন ৷

Justice Ashok Bhushan: ৫ জুলাই ১৯৫৬ সালে উত্তরপ্রদেশের জৌনপুরে জন্ম৷ অশোক ভূষণ এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক হওয়ার পর ১৯৭৯ এ এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি-র ডিগ্রি করেন ৷ ৯ এপ্রিল ১৯৭৯ উত্তরপ্রদেশ বার কাউন্সিলের যোগ দেন ৷ এলাহাবাদ হাইকোর্টেই প্র্যাক্টিস শুরু করেন ভূষণ ৷ ২০০১ সাল পর্যন্ত এলাহাবাদ হাইকোর্টেই প্র্যাক্টিস করেছেন ৷ ২৪ এপ্রিল ২০০১ সালে এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত হন ৷ এরপর ১০ জুলাই ২০১৪ সালে কেরল হাইকোর্টে তাকে ট্রান্সফার করা হয় ৷ ১ অগাস্ট ২০১৪ সালে কেরল হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি করা হয় ৷ ১৩ মে ২০১৬ সালে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত করা হয় ৷

Justice S. Abdul Nazeer: ৫ জানুয়ারি ১৯৫৮ সালে কর্নাটকের কনারায় একটি মুসলিম পরিবারে তার জন্ম ৷ বি.কম করার পর এসডিএম ল কলেজ থেকে তিনি আইন নিয়ে পড়াশোনা করেন ৷ ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৩ সালে কর্ণাটক হাইকোর্টে কেরিয়ার শুরু করেন ৷

First published: 10:17:38 AM Nov 09, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर