• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • PRASHANT KISHOR MEETS SHARAD POWER FOR SECOND TIME IN TWO WEEKS DMG

Prashant Kishor meets Sharad Pawar: ফের পিকে- পাওয়ার বৈঠক! বিরোধীদের একসূত্রে গাঁথতে জোর তৎপরতা দিল্লিতে

ফের পাওয়ারের সঙ্গে বৈঠকে প্রশান্ত কিশোর৷

গত ১১ জুন মুম্বাইতে শরদ পাওয়ারের (Sharad Pawar) সঙ্গে প্রশান্ত কিশোরের (Prashant Kishor) বৈঠক হয়েছিল৷ তার পর ফের এ দিন দিল্লিতে দু' জনের মধ্যে সাক্ষাৎ হল৷

  • Share this:

    #দিল্লি: মঙ্গলবারই কংগ্রেস বাদে দেশের অন্যান্য বিরোধী দলগুলির সঙ্গে বৈঠকে বসবেন শরদ পাওয়ার৷ তার আগে ফের একবার ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে বৈঠক করলেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার৷ এই নিয়ে গত দু' সপ্তাহে দ্বিতীয় প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে বৈঠক হল পাওয়ারের৷ এ দিনের বৈঠকের পর ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে বিরোধীদের একজোট হয়ে বিজেপি-র বিরুদ্ধে ভোট যুদ্ধে নামার সম্ভাবনা আরও গতি পেল৷

    ২০১৮ সালে প্রাক্তন বিজেপি নেতা যশবন্ত সিং নরেন্দ্র মোদি সরকারের নীতির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় মঞ্চ গঠন করেছিলেন৷ যে অকংগ্রেসি দলগুলি এই মঞ্চের সদস্য ছিল, তাদের নেতাদের নিয়ে মঙ্গলবার নয়াদিল্লিতে শরদ পাওয়ারের বাসভবনে বিকেল চারটেয় বৈঠক হওয়ার কথা৷ এই প্রথম বার রাষ্ট্রীয় মঞ্চের বৈঠকে অংশ নিচ্ছেন পাওয়ার৷

    গত ১১ জুন মুম্বাইতে শরদ পাওয়ারের সঙ্গে প্রশান্ত কিশোরের বৈঠক হয়েছিল৷ তার পর ফের এ দিন দিল্লিতে দু' জনের মধ্যে সাক্ষাৎ হল৷

    পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের বিপুল জয়ের নেপথ্যে প্রশান্ত কিশোরের বড় ভূমিকা রয়েছে৷ গোটা দেশে মোদি বিরোধী মুখ হিসেবে মমতার নামও জোরাল ভাবে উঠে আসছে৷ যশবন্ত সিং ভোটের আগে আনুষ্ঠানিক ভাবে তৃণমূলে যোগ দেন৷ প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গেও তাঁর সুসম্পর্ক রয়েছে৷ আর এই রাষ্ট্রীয় মঞ্চের প্রতি পূর্ণ সমর্থন রয়েছে মমতারও৷ সবমিলিয়ে প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে পাওয়ারের বৈঠক আসলে বিরোধীদের একজোট করার রণনীতি তৈরির গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ বলেই মনে করা হচ্ছে৷

    বঙ্গে তৃণমূলের বিপুল জয় আসলে বিরোধীরা আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে৷ ফলে ফের একজোট হয়ে বিজেপি-কে টক্কর দিতে আগ্রহী অধিকাংশ বিরোধী নেতা৷ এমন কি, প্রয়োজনে কংগ্রেসকে বাদ দিয়েও জোট গঠনে ইচ্ছাপ্রকাশ করেছে অনেক দল৷ পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনে জয়ের পরই ঐক্যবদ্ধ হয়ে বিজেপি-র বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছিলেন মমতা৷ পাওয়ারের সঙ্গে মমতার অত্যন্ত সুসম্পর্ক রয়েছে৷ তবে দু' জনেই একটি বিষয়ে সহমত, বিরোধী জোট হলেও তার নেতৃত্বে রাহুল গান্ধিকে চান না তাঁরা৷

    কয়েক দিন আগেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে৷ অন্যদিকে বিরোধী জোট নিয়ে পাওয়ারের সঙ্গে কথা বলেছেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউতও৷ তবে বিজেপি-র প্রাক্তন জোট সঙ্গী শিবসেনার অবস্থান নিয়ে কিছুটা ধোঁয়াশাও রয়েছে৷ কারণ শিবসেনার তরফে সরকারি ভাবেই বলা হয়েছে রাজনৈতিক ভাবে বিজেপি-র সঙ্গে সম্পর্ক না থাকলেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে তাদের সুসম্পর্কই রয়েছে৷ এই পরিস্থিতিতে পাওয়ারের সঙ্গে প্রশান্ত কিশোরের বৈঠক আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে৷

    শিবসেনার অবস্থান নিয়ে যে বর্তমানে তাদের জোটসঙ্গী এনসিপি-রও ভরসা নেই, তা বুঝিয়ে দিয়েছেন শরদ পাওয়ার৷ কারণ শিবসেনা হাবেভাবে বুঝিয়ে দিচ্ছে যে বিজেপি-র জন্য তাদের দরজা বন্ধ হয়নি৷ ফলে শিবসেনা যাতে নিজেদের বিশ্বাসযোগ্যতা না হারিয়ে ফেলে, সেকথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন শরদ পাওয়ার৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: