NPR-এর তখন ও এখন, কী কী পরিবর্তন এসেছে নতুন নিয়মে?

NPR-এর তখন ও এখন, কী কী পরিবর্তন এসেছে নতুন নিয়মে?

নাগরিকত্ব আইন ও নাগরিকপঞ্জি বিতর্কে উত্তাল গোটা দেশ ৷ তার মাঝেই NPR-এ অনুমোদন কেন্দ্রের ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: নাগরিকত্ব আইন ও নাগরিকপঞ্জি বিতর্কে উত্তাল গোটা দেশ ৷ তার মাঝেই NPR-এ অনুমোদন কেন্দ্রের ৷ ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টারে ছাড়পত্র দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ৷ NPR চালু করতে বদ্ধপরিকর মোদি সরকার ৷ বিরোধীদের আপত্তি উড়িয়েই ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার তৈরির কাজ শুরু করতে অনুমোদন দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা ৷

এনপিআর কী? এনপিআর-এর পুরো কথা হল ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার। এর মাধ্যমে কোন এলাকায় কতজন বাস করেন, শেষ ছ’মাসে কোনও এলাকায় নতুন কত বাসিন্দা এসেছেন তার হিসেব নেওয়া হয়। ওই হিসেবের মধ্যে স্ত্রী, পুরুষ, শিশু ভাগের পাশাপাশি ধর্ম অনুসারেও ভাগ করা হয়। সেই কাজই বন্ধ করে দিল রাজ্য সরকার। জনগণনা যেমন খতিয়ে দেখে লোকসংখ্যা। ঠিক সে ভাবেই নাগরিকদের বিভিন্ন নথি দেখে ওই লোকসংখ্যার চরিত্র বিশ্লেষণ করে এনপিআর। যেখানে জানতে চাওয়া হয়, ওই ব্যাক্তি কোনও ধর্মের, কতদিন ধরে আছেন। ওই ব্যাক্তি কি বৈধ নাগরিক, নাকি আইনি বিধি মেনে কিছুদিনের জন্য আছে। এক কথায় নাগরিকের চরিত্রের তথ্য তুলে ধরাই এনপিআর-এর উদ্দেশ্য।

এর আগে NPR-এ ১৫টি তথ্য সংগ্র করা হয়েছিল ৷ এবার সেটি বেড়ে হয়েছে ২১টি ৷ এর মধ্যে অন্তভুর্ক্ত হয়েছ শেষ বাসস্থানের ঠিকানা, পাসপোর্ট নম্বর, আধার নম্বর, ভোটার আইডি, ড্রাইভিং লাইসেন্স নম্বর, মোবাইল নম্বর ৷ এই সব তথ্য আগের বার সংগ্রহে রাখা হয়নি ৷ শুধু তাই নয়, মা-বাবার নাম ও স্বামী-স্ত্রীয়ের নাম একই জায়গায় নথিভুক্ত করা হয়েছে ৷

নাগরিকত্ব (সংশোধনী) আইন অনুসারে ১৯৮৭ সালের পরে যারা জন্মেছে, তাদের ক্ষেত্রে বাবা-মায়ের মধ্যে অন্তত একজনকে নাগরিক হতে হবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচকদের দাবি, দেশব্যাপী জাতীয় নাগরিক পঞ্জি তৈরি হলে বাবা-মায়ের জন্মস্থান ও জন্মের তারিখ প্রয়োজন হবে। একথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত সংসদ ও সংসদের বাইরে অনেকবার বলেছেন।

NPR অর্থাৎ ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টারের জন্য লাগবে কোনও নথি ৷ এমনকি দরকার নেই কোনও বায়োমেট্রিক তথ্যেরও ৷ বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করবেন সংশ্লিষ্ট কর্মীরা ৷ মৌখিক তথ্যের উপর ভিত্তি করেই তৈরি হবে NPR ৷ জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর ৷ কেন্দ্রের তরফে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, অসম বাদে সব রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ২০২০ সালের এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এনপিআর-এর কাজ চলবে ৷ এর জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ৮৫০০ কোটি টাকা ৷

এই প্রসঙ্গে ট্যুইট করে সিপিআইএম নেতা সীতারাম ইয়েচুরি জানিয়েছেন, ‘NPR-এর জন্য মোট খরচা হবে ৮, ৫০০ কোটি টাকা, সেটা সরকার জানিয়েছে ৷ NPR-এ মা-বাবার জন্মস্থান ও জন্মের তারিখ জানাতে বলা হয়েছে ৷ যে ২১টি পয়েন্টের কথা বলা হয়েছে ২০১০-এ তার অধিকাংশ জানানো হয়নি ৷’

First published: 02:44:54 PM Dec 25, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर