দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাজি পোড়ানোর নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতে হবে, জানাল দিল্লির দূষণ নিয়ন্ত্রন পর্ষদ

বাজি পোড়ানোর নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতে হবে, জানাল দিল্লির দূষণ নিয়ন্ত্রন পর্ষদ

কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রন পর্ষদের প্রধান শিব দাস মিনা, দিল্লি-সহ, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ এবং রাজস্থানের মতো তিন রাজ্যকে এদিন বলেন, আগামী ২ জানুয়ারি, ২০২১ পর্যন্ত এই বিধি-নিষেধ মেনে চলতে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দিল্লির দূষণের মাত্রা বেড়ে গিয়েছে অনেক। রাজধানীর এই অতিরিক্ত দূষণের কথা মাথায় রেখেই, বুধবার কেন্দ্রের দূষণ নিয়ন্ত্রন পর্ষদ, দূষণ নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থাগুলিকে নির্দেশ দিল বড়দিন এবং নববর্ষে বাজি বিক্রি ও পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতে। দিল্লি এবং অন্য তিন রাজ্যের সংস্থাগুলিকে নিশ্চিত করতে হবে, যেন এই নিয়ম কেউ লঙ্ঘন না করে। কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রন পর্ষদের প্রধান শিব দাস মিনা, দিল্লি-সহ, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ এবং রাজস্থানের মতো তিন রাজ্যকে এদিন বলেন, আগামী ২ জানুয়ারি, ২০২১ পর্যন্ত এই বিধি-নিষেধ মেনে চলতে।

সিপিসিবি’র চেয়ারম্যানের মতে, দিন-দিন যে ভাবে দিল্লির বায়ু দূষণ বেড়ে চলেছে, সঠিক পদক্ষেপ নেওয়া খুবই জরুরি। ক্রিসমাস এবং নিউ ইয়ার উপলক্ষে বাজি পোড়ানোর হিড়িকও বেশ বেড়েছে আজকাল। সে কারণে, এই সময় অ্যাকশন নেওয়া প্রয়োজন। তবে শুধুই বাজি পোড়ানো বন্ধ নয়, দূষণ নিয়ন্ত্রণের জন্য দিল্লি-সহ ওই তিন রাজ্যের সংস্থাগুলিকে, রাস্তা নিয়মিত পরিষ্কার করা এবং ধুলো-বালি রোধ করতে জল ছেটানো, এই বিষয়গুলি সম্পর্কেও নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি বলেন, কোর্ট এবং ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইবুনাল, বাজি বিক্রি ও পোড়ানোর উপর যে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, তা যাতে নাগরিকেরা মেনে চলেন, এ ব্যাপারে নিশ্চিত করার দায়িত্ব এই সংস্থাগুলির। নিয়মে কড়াকড়ি আনতে, নিয়ম লঙ্ঘনকারীকে জরিমানা অথবা যে কোনও নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার আদেশের মত শাস্তি দেওয়া উচিৎ সংস্থাগুলির।

দিল্লির দূষণের মাত্রায় একটানা নজর রেখে দেখা গিয়েছে, রাজধানীতে দূষণের মাত্রা ২২ ডিসেম্বর, ২৫০ ইউ জি/ এম৩ ছাড়িয়ে গিয়েছে। এরপর, ২৩ ডিসেম্বর আবার এই মাত্রা দাঁড়িয়েছে ৩০০ ইউ জি’র থেকেও বেশি। এয়ার কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট কমিশনের মতে, বিষয়টি নিয়ে ভাবনা-চিন্তা এবং পদক্ষেপ নেওয়ার প্রয়োজন।

Published by: Antara Dey
First published: December 24, 2020, 5:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर