এ বার গোয়াতেও সংকটে কংগ্রেস, ১৫-র মধ্যে ১০ বিধায়ক যোগ দিতে পারেন বিজেপি-তে

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 10, 2019 10:30 PM IST
এ বার গোয়াতেও সংকটে কংগ্রেস, ১৫-র মধ্যে ১০ বিধায়ক যোগ দিতে পারেন বিজেপি-তে
Rebel Congress MLAs, accompanied by Goa chief minister pramod Sawant, submitting letter to Speaker.
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 10, 2019 10:30 PM IST

#নয়াদিল্লি: শুধু তেলেঙ্গানা কিংবা কর্নাটকেই নয়, গোয়াতেও ভাঙনের মুখোমুখি কংগ্রেস পরিষদীয় দল। ইতিমধ্যেই সেখানকার ১৫ বিধায়কের মধ্যে ১০ জন দল থেকে আলাদা হওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। তাদের বিজেপির যুক্ত হওয়া এখন শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা বলেই জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই এই দশ বিধায়ক স্পিকারের সঙ্গে দেখা করেছেন।

গত মাসেই শোনা গিয়েছিল গোয়ার ১০ কংগ্রেস বিধায়ক গেরুয়া শিবিরে যোগ দিতে পারেন। কিন্তু সে সময়ে গোয়ার বিজেপি রাজ্য সভাপতি বিনয় তেণ্ডুলকর সাংবাদিকদের সামনে স্পষ্ট বলে দিয়েছিলেন, “কংগ্রেসের ১০ বিধায়ক বিজেপি-তে যোগ দিতে চেয়েছেন। কিন্তু আমাদের দল তা প্রত্যাখ্যান করেছে।” কংগ্রেস যদিও সে সময় অভিযোগ তুলেছিল, বিজেপি টাকার প্রলোভন দেখিয়ে তাদের বিধায়কদের ভাঙাতে চাইছে।

গোয়া বিধানসভার সদস্য সংখ্যা ৪০। ২০১৭ সালের নির্বাচনের পরে কংগ্রেস গোয়ায় ছিল একক বৃহত্তম দল। যদিও এমজিপি এবং গোয়া ফরোয়ার্ড পার্টির সমর্থন নিয়ে গোয়ার সরকার গড়ে বিজেপি। পরে সেখান ভাঙন হতে হতে কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা দাঁড়িয়েছে পাঁচ-এ। মনোহর পার্রিকরের মৃত্যুর পর গোয়ায় বিধায়ক সংখ্যা ৩৬-এ গিয়ে দাঁড়ায়। প্রায় একমাস আগে গোয়া বিজেপির সভাপতি জানিয়েছিলেন ১০ কংগ্রেস বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দিতে চান।

প্রসঙ্গত, গোয়া বিধানসভা নির্বাচনের পর একক বৃহত্তম দল ছিল কংগ্রেসই। কিন্তু তাদের না ডেকে সংশ্লিষ্ট রাজ্যের রাজ্যপাল সরকার গড়তে ডেকেছিল বিজেপি, জিএফপি জোটকেই। ওই উদাহরণ নিয়েই গতবছর কর্ণাটকের বিধানসভা ভোটের ফল প্রকাশের পর মধ্যরাতে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিল কংগ্রেস। কর্ণাটকে কংগ্রেস-জেডিএস-এর মিলিত আসন বেশি হলেও একক বৃহত্তম দল ছিল বিজেপি। রাজ্যপাল বাজুভাই বালা ইয়েদুরাপ্পাকে ডেকে সরকার গঠনের অনুমতি দেন। যে সব বিধায়ক দলের সঙ্গে বিচ্ছেদ করেছেন, তাঁরা হলেন, বাবু কাভালেকর, বাবুশ মনসেরাট্টে, তাঁর স্ত্রী জেনিফার মনসেরাট্টে, টনি ফার্নান্ডেজ, ফ্রান্সিস সি

First published: 10:30:50 PM Jul 10, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर