ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার মেসেজ ফোনে, তথ্য দিতেই পুলিসকর্মীর তিন লাখ টাকা গায়েব

ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার মেসেজ ফোনে, তথ্য দিতেই পুলিসকর্মীর তিন লাখ টাকা গায়েব

অন্তর্জালের কোনায় কোনায় ছড়িয়ে রয়েছে চোরের দল।

অন্তর্জালের কোনায় কোনায় ছড়িয়ে রয়েছে চোরের দল।

  • Share this:
    #ভোপাল: ডিজিটাল হচ্ছে দুনিয়া। আর পদে-পদে বাড়ছে ঝুঁকি। একটু এদিক-ওদিক হলেই প্রতারণার শিকার হতে হচ্ছে সাধারন মানুষকে। এর কি কোনও প্রতিকার নেই! অন্তর্জালের কোনায় কোনায় ছড়িয়ে রয়েছে চোরের দল। আপনার ক্ষণিকের অসাবধানতা তাদের পকেট ভর্তি করে দেবে। আর আপনাকে করবে দেউলিয়া। দেশে নতুন করে করোনার প্রকোপ শুরু হয়েছে। ফের বহু রাজ্যে আতঙ্কের পরিবেশ। যদিও টিকাকরণ চলছে পুরোদমে। তাই এখনই আতঙ্কগ্রস্থ হওয়ার তেমন কোনো কারণ নেই। তবে টিকাকরণ নিয়েও শুরু হয়েছে জালিয়াতি। কোনওরকম অজানা নম্বর থেকে আসা লিংকে ক্লিক করার আগে অবশ্যই সতর্ক থাকবেন। এখনই সাবধান না হলে আপনিও জালিয়াতদের শিকার হতে পারেন। মধ্যপ্রদেশের রিভার স্টেট আর্মড ফোর্সের একজন কনস্টেবল জালিয়াতির শিকার হলেন যেমন। করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার মেসেজ এসেছিল তাঁর ফোনে। লিংকে ক্লিক করে তিনি যাবতীয় তথ্য দিলেন। আর তারপরই তাঁর ব্যাংক একাউন্ট থেকে উধাও হয়ে গেল তিন লাখ টাকা। শত্রুঘ্ন প্যাটেল নামের ওই কনস্টেবল তড়িঘড়ি ব্যাংকে ছুটে যান। কিন্তু ধর্মঘট থাকার জন্য কোনও লাভ হয়নি। এরপর তিনি সাইবার ছেলে অভিযোগ দায়ের করেন। তবে এখনও পর্যন্ত সেই জালিয়াতদের ব্যাপারে কোনও খোঁজ পায়নি পুলিশ। এরপরই ভোপাল পুলিশের হেডকোয়ার্টার-এর তরফে একটি অ্যাডভাইজারি জারি করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, করোনা ভ্যাকসিন সংক্রান্ত কোনও মেসেজ এলে এবং রেজিস্ট্রেশন বা অন্য কোনো ছুতোয় তথ্য বা টাকা চাওয়া হলে সতর্ক থাকতে হবে। কোনওরকম লিঙ্কে ক্লিক করে চলবে না। কোনও এপ্লিকেশন মোবাইলে ডাউনলোড কর যাবে না। টিকাকরণের জন্য নিকটবর্তী স্বাস্থ্য কেন্দ্রে গিয়ে কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।
    Published by:Suman Majumder
    First published: