কৃষি আইন বাধ্যতামূলক নয়, লোকসভায় নতুন সুর মোদির গলায়

কৃষি আইন বাধ্যতামূলক নয়, লোকসভায় নতুন সুর মোদির গলায়
লোকসভায় নরেন্দ্র মোদি। ছবি পিটিআই।

তীব্র কটাক্ষ করলেন তাঁর ভাষায় 'আন্দোলনজীবী'দের।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: নয়া কৃষি আইন কোনও ভাবেই বর্তমান মাণ্ডি ব্যবস্থাকে নস্যাৎ করবে না। এই আইন কারও ওপর জোর করে চাপিয়েও দেওয়া হচ্ছে না। কৃষকরা চাইলে এই আইন মানতেও পারেন, নাও মানতে পারেন, লোকসভায় জবাবি ভাষণে এমনটাই বললেন নরেন্দ্র মোদি। পাশাপাশি তীব্র কটাক্ষ করলেন তাঁর ভাষায় 'আন্দোলনজীবী'দের।

    বুধবার নরেন্দ্র মোদি বলেন, নয়া কৃষি আইন কৃষি ক্ষেত্রে একটি নতুন ব্যবস্থা। কোনও কৃষক যদি মনে করেন তিনি পুরনো ব্যবস্থায় বেশি উপকৃত হবেন তিনি সেটাই ‌ব্যবহার করতে পারেন। যেখানে ইচ্ছে সেখানেই ফসল বিক্রি করতে পারেন। এই সংস্কারকে জরুরি বলেও তুলে ধরেন তিনি। পাশাপাশি বলেন এই আইন বলবৎ হতেই এমএসপি (ন্যূনতম সহায়ক মূল্য) তে কেনাবেচা বেড়েছে।

    আন্দোলনকারী কৃষিজীবীদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করে এদিন মোদি বলেন, কেন্দ্র তো বটেই, দাবিদাওয়া নিয়ে পথে নামা কৃষকদের প্রতি সংসদের শ্রদ্ধা রয়েছে। সেই কারণেই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। কিন্তু বিরোধীদের জন্য তাঁর মুখে ছিল কড়া সুর। তিনি বলেন, লোকসভার কাজে যারা বাধা দিচ্ছেন তারা সুপরিকল্পিত ভাবেই এ কাজ করছেন। কারণ তাঁরা মানুষ যে ঠিক পথে হাঁটছে, তা তাদের হজম হচ্ছে না।


    এদিন কৃষি আন্দোলন নিয়ে সরকারি অবস্থান স্পষ্ট হতেই কক্ষ ত্যাগ করে কংগ্রেস সাংসদরা। কক্ষ ত্যাগ করে তৃণমূলও। মোদি কটাক্ষের সুরে বলেন, রাজ্যসভা ও লোকসভায় কংগ্রেসকে আলাদা আলাদা অবস্থান নিতে দেখা যাচ্ছে। তাঁর টিপ্পনি, "একটা দ্বিধাবিভক্ত দল দেশের কোনও ভালো করতে পারে না।"

    আন্দোলনকারীদের নিয়ে তাঁর বার্তা, আন্দোলনের পবিত্রতা নষ্ট করেছেন তাঁরা। পাঞ্জাবে টোলপ্লাজায় ভাঙচুর, টেলিফোন টাওয়ার নষ্ট করার ঘটনার দ্ব্যার্থহীন ভাষায় সমালোচনা করেন তিনি।

    Published by:Arka Deb
    First published:

    লেটেস্ট খবর