'CAA থেকে একচুলও সরবো না,' দিল্লির মঞ্চ থেকে ফের হুংকার মোদির

'CAA থেকে একচুলও সরবো না,' দিল্লির মঞ্চ থেকে ফের হুংকার মোদির
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

বললেন, 'ঐতিহাসিক অবিচারকে সংশোধন করতেই সিএএ আনা হয়েছে৷ নিপীড়িত মানুষদের কি সাহায্য করা উচিত নয়?'

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: এনসিসি-র র‌্যালিতে গিয়েও সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রসঙ্গ তুললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ বললেন, 'ঐতিহাসিক অবিচারকে সংশোধন করতেই সিএএ আনা হয়েছে৷ নিপীড়িত মানুষদের কি সাহায্য করা উচিত নয়?'

মঙ্গলবার মোদি এনসিসি র‌্যালিতে গিয়ে বলেন, 'দেশ যখন স্বাধীন হচ্ছে, তত্‍কালীন ভারত সরকার দেশভাগ মেনে নিয়েছিল৷ নেহরু-লিয়াকত চুক্তি ছিল সংখ্যালঘুদের রক্ষা করার জন্য৷ গান্ধিজিও তা-ই চেয়েছিলেন৷ ভারত তখন যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, সেই প্রতিশ্রুতি পালন করতেই সিএএ আনা হয়েছে৷ সিএএ থেকে একচুলও সরবো না৷ '

এরপরেই সিএএ নিয়ে বিরোধীদের এক হাত নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য, 'নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বিরোধীরা ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতি করছে৷ কেন ওদের অত্যাচার চোখে পড়ছে না? কেন এই নিয়ে চুপ করে আছে ওরা? কেউ কেউ দলিতদের প্রতিনিধিত্বের নাটক করছে৷ পাকিস্তানে দলিতদের উপর অত্যাচার হলে, কেন বিষয়টি এরা এড়িয়ে যায়? আসলে ওরা ভুলে গিয়েছে, পাকিস্তানে ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার হয়ে যারা ভারতের আশ্রয় নিতে এসেছেন, তাঁরাও দলিত৷ আসলে আমাদের সরকারের ভাবমূর্তি বিশ্বের দরবারে খারাপ করতেই একজোটে সামিল হয়েছে বিরোধীরা৷'

মোদি বলেন, 'ওদের জানিয়ে রাখি, আমি নিজের ভাবমূর্তির কথা ভেবে কাজ করি না৷ দেশের ভাবমূর্তির কথা ভেবে কাজ করি৷ যে সব লোকেরা এখন সংবিধান নিয়ে চেঁচাচ্ছেন, তারাই একসময় সংবিধানকে ডাস্টবিনে ছুড়ে ফেলে দিয়েছিল৷'

এরপরেই পাকিস্তানকে আক্রমণ করে মোদি বলেন, প্রতিবেশী দেশ আমাদের সঙ্গে ৩টি যুদ্ধে হেরে গিয়েছে৷ তাও প্রক্সি ওয়ার চালিয়ে যাচ্ছে৷ তাঁর কথায়, 'শুধু জম্মু-কাশ্মীরই নয়, দেশের অন্যান্য জায়গাও এখন শান্ত৷ উত্তর-পূর্ব ভারত দশকের পর দশক বঞ্চিত হয়েছে৷ আমাদের সরকার তাদের ইচ্ছেও পূরণ করেছে৷'

First published: January 28, 2020, 3:15 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर