‘‘ আমি যে দলিতদের পাশে আছি সেটা অনেকেই পছন্দ করেন না ’’: PM Modi to Network18

‘‘ আমি যে দলিতদের পাশে আছি সেটা অনেকেই পছন্দ করেন না ’’: PM Modi to Network18
Network 18 গ্রুপ এডিটর রাহুল জোশীকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

Network 18-এর গ্রুপ এডিটর রাহুল জোশীকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে দলিত ইস্যু ছাড়াও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি খোলাখুলি আলোচনা করলেন ৷

  • CNN-News18
  • Last Updated: January 1, 1970, 5:30 AM IST
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দেশে জাতিভেদ প্রথা এখনও চলছে ৷ সমাজে বিভাজনের বহু প্রাচীণ এই রীতি শুধুমাত্র নিজেদের স্বার্থ পূরণের জন্যই একদল মানুষ করে থাকে ৷ রাজনৈতিক দিক থেকে ভোট ব্যাঙ্ক আরও মজবুত করাটাই যাদের উদ্দেশ্য ৷ Network 18-এর গ্রুপ এডিটর রাহুল জোশীকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে দলিত ইস্যু এবং আগামী বছরের উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন প্রসঙ্গ ছাড়াও আরও বহু বিষয় নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ তাঁর দীর্ঘ ৭৫ মিনিটের সাক্ষাৎকারে উঠে এল একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ৷

২০১৪ সালের মে মাসে যখন প্রধানমন্ত্রী পদে দায়িত্ব নিয়েছিলেন তখন দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা খুব একটা ভাল ছিল না ৷ কিন্তু এতে হতাশ হয়ে না পড়ে সামনের দিকেই তাকাতে চেয়েছিলেন মোদি ৷ প্রধানমন্ত্রী বলেন, গুজরাতের প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন ১৪ বছরে কোনও রাজনৈতিক স্বর্থসিদ্ধির জন্য একটাও ফাইলও খোলেননি তিনি ৷ এর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী পদে গত দু’বছরেরও বেশি সময় কাটানোর পর তাঁর মনে হয়েছে দিল্লি হয়তো কখনই সর্দার প্যাটেল, মোরারজি দেসাই বা দেবেগৌড়ার মতো তৃণমূল স্তরের প্রধানমন্ত্রীদের সহজে আপন করে করে নিতে পারেনি ৷ যে সমস্যা তাঁর ক্ষেত্রেও হতে পারে বলে প্রথমে মনে হয়েছিল মোদির ৷ কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর মতে অত্যন্ত গর্বের বিষয়, যে যখন তিনি দায়িত্ব নিয়েছিলেন তখন দেশকে একটা ডুবন্ত জাহাজ হিসেবে মনে হয়েছিল ৷ কিন্তু আজ অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে তিনি বলতে পারছেন যে বিশ্ব অর্থনীতিতে বর্তমানে একটা দারুণ জায়গা করে নিতে সফল এই দেশও ৷ মোদি বলেন, ‘‘ সরকার গড়ার সময় আমার প্রথম লক্ষ্য ছিল হতাশার পরিবেশটা সম্পূর্ণ মুছে ফেলে দেশবাসীর মনে আশার আলো সঞ্চার করা ৷ এই কাজটা কিন্তু শুধুমাত্র ভাষণ দিয়ে করা সম্ভব নয় ৷ এর জন্য চাই সঠিক পদক্ষেপ নেওয়া ৷ আর আজ দু’বছরেরও বেশি সময়ের পর আমি জোর দিয়ে বলতে পারি শুধুমাত্র দেশের মানুষের মধ্যেই আশার আলো সঞ্চার হয়নি ৷ গোটা বিশ্বেরই ভারতের প্রতি আস্থা কয়েক গুণ বেড়েছে ৷’’

দেশের অধিকাংশ মানুষের কর ফাঁকির প্রসঙ্গও তুলে ধরেন তিনি ৷ পাশাপাশি শুধু ভুল সংশোধনই নয় ৷ ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে সেটাকেই ভবিষ্যতে কাজে লাগাতে হবে বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী ৷ মোদির মতে, সমাজে শান্তি বজায় রাখাটা দেশের অর্থনীতির উন্নয়নের ক্ষেত্রেও অত্যন্ত প্রয়োজন ৷ ‘‘ শান্তি এবং ঐক্যই সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন সমাজে ৷ এমনকী, পরিবারের ক্ষেত্রেও এই একই জিনিস খাটে ৷ কারণ যতোই আপনি টাকার গদিতে বসে আছেন ৷ পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঐক্যতা না থাকলে কিছুই হবে না৷ আর শুধুমাত্র দারিদ্র দূরীকরণের লড়াইয়েই ঐক্যতা নয় ৷ সমাজের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতাই সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন ৷ ’’ সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন মোদি ৷ আগামী বছরই উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন ৷ সাক্ষাৎকারে নির্বাচন প্রসঙ্গ উঠলে মোদি বলেন, ‘‘ উত্তরপ্রদেশ নির্বাচন আসতে এখনও অনেক সময় বাকি ৷ তা সত্ত্বেও আমাদের সব সিদ্ধান্তই হয়তো ওই নির্বাচনের সঙ্গে জড়িয়ে ৷যা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ৷ রাজনীতির পণ্ডিতরা কখনই নিজেদের মাথা থেকে রাজনীতি সরাতে পারেন না ৷ ঠাণ্ডা ঘরে বসে মাথায় সব রাজনৈতিক চালগুলোই আসে তাঁদের ৷’’ উন্নয়নের ইস্যু নিয়েই উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে যে বিজেপি লড়বে, সেকথাও এদিন স্পষ্ট করে দেন মোদি ৷  

First published: 11:05:26 PM Sep 02, 2016
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर