সোমবার মহারাষ্ট্র থেকে কৃষিপণ্য নিয়ে আসবে কিসান রেল || যাত্রাশুরু মোদির হাতেই

সোমবার মহারাষ্ট্র থেকে কৃষিপণ্য নিয়ে আসবে কিসান রেল || যাত্রাশুরু মোদির হাতেই

মহারাষ্ট্র-বাংলায় কিসান রেলের সূচনায় মোদি।

আগামী ২৮ ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে চারটের সময়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার এবং পীযূষ গোয়েলও উপস্থিত থাকবেন এই অনুষ্ঠানে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: মহারাষ্ট্রের সাঙ্গোলা থেকে পশ্চিমবঙ্গের শালিমার পর্যন্ত ১০০ তম কিষান রেলের যাত্রার শুভসূচনা করতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদি। আগামী ২৮ ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে চারটের সময়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার এবং পীযূষ গোয়েলও উপস্থিত থাকবেন এই অনুষ্ঠানে।

    এই বহু-পরিষেবামূলক রেল সার্ভিসে বহু ফল-সবজি নির্দিষ্ট জায়াগায় পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ফুলকপি, ক্যাপসিকাম, বাঁধাকপি, লঙ্কা, পেঁয়াজের পাশাপাশি আঙুর, কমলা, ডালিম, কলা, কাস্টার্ড আপেল ইত্যাদি বহন করা হচ্ছে। যে কোনও পরিমাণেরই ফলমূল ও শাকসবজি একটি জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পৌঁছে দেওয়া যাবে। প্রসঙ্গত এই পরিবহণে ভারত সরকার ৫০% ভর্তুকিও বাড়িয়েছে।

    চলতি বছর ৭ আগস্ট প্রথম কিসান রেল দেবলালী থেকে দানাপুর পর্যন্ত চালু হয়েছিল। পরে তা মুজফফরপুর পর্যন্ত প্রসারিত হয়। কৃষকদের কাছ থেকে ভালো সাড়া পাওয়ার ফলে এই রেলের চলাচল সাপ্তাহিক থেকে এক সপ্তাহে তিন দিন বাড়ানো হয়েছিল। কিসান রেল দেশজুড়ে দ্রুত কৃষিপণ্য পরিবহণের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করছে। এটি কৃষিপণ্যের যোগানকে আরও মসৃণ করেছে। রাজধানীতে চলা কৃষকবিক্ষোভের সময়ে এই রেলযাত্রায় প্রধানমন্ত্রীর অংশগ্রহণ অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। পর্যবেক্ষকরা বলছেন, আসলে কৃষি আধুনিকরণের পথে হাঁটার বার্তাই দিতে চাইছেন প্রধানমন্ত্রী।

    -ANOOP GUPTA

    Published by:Arka Deb
    First published: