PM Modi shared Howrah Bridge video| হাওড়া ব্রিজের আলোর মালায় মুগ্ধ স্বয়ং নরেন্দ্র মোদি! শেয়ার করলেন ভিডিও

হাওড়া ব্রিজের ভিডিও শেয়ার করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

PM Modi shared Howrah Bridge video|দু'দিন আগেই হাওড়া ব্রিজে টোকিও অলিম্পিকের জন্যে নতুন আলোক সজ্জা আনা হয়।

  • Share this:

    #কলকাতা: নতুন আলোকে সুসজ্জিত হাওড়া ব্রিজ বা রবীন্দ্র সেতুর ভিডিও শেয়ার করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ফেসবুকে নিজের পেজে শেয়ার করেছেন এই ভিডিও প্রধানমন্ত্রী। লিখেছেন, কলকাতার হাওড়াব্রিজ, সবসময়ের মতো আজও অসম্ভব সুন্দর দেখাচ্ছে। গোটা দেশের হয়ে সেই শুভেচ্ছাবার্তা দিচ্ছে ( "Kolkata’s Howrah Bridge, looking spectacular as always, gives the message of #Cheer4India".)

    দু'দিন আগেই হাওড়া ব্রিজে টোকিও অলিম্পিকের জন্যে নতুন  আলোক সজ্জা আনা হয়। বিভিন্ন সময় এই সেতুতে নতুন নতুন রঙয়ের ঝলক দেখা যাচ্ছে। কখনও জাপানের জাতীয় পতাকা তো কখনও অলিম্পিক্সে অংশগ্রহণকারী দেশগুলো বিভিন্ন প্রতীক ভেসে উঠছে আলোকসজ্জায়।কলকাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় বন্দরের আধিকারিকদের উদ্যোগেই এইভাবে রঙিন আলোকসজ্জায় সাজিয়ে তোলা হয়েছে এই ঐতিহ্যশালী সেতুটিকে।

    বন্দর চেয়ারম্যান বিনীত কুমার জানিয়েছেন, "টোকিও অলিম্পিক্স গত বছর হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কোভিডের জন্য এবার তা এক বছর পিছিয়ে গিয়েছে। আমরা জানি যে পাঁচটি মহাদেশের প্রতিযোগীরা এই টুর্নামেন্টে অংশ নেবে। সেদিকটা ভেবেই আমরা বিভিন্ন মহাদেশের প্রতীককে আলোকসজ্জার মাধ্যমে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। এছাড়াও আয়োজন দেশ হিসেবে জাপানের জাতীয় পতাকা থেকে শুরু করে সবকিছু আলাদা ভাবে তুলে ধরতে চেয়েছি।"

    ভারতীয় ক্রীড়াবিদদের উৎসাহ দিতে আলাদা করে জাতীয় পতাকাও ব্রিজের আলোকসজ্জায় দেখতে পাওয়া যাবে। তেরঙ্গা দেখা যাবে ব্রিজে।এর আগেও বিভিন্ন সময় হাওড়া ব্রিজ বিভিন্ন কারণে নতুন নতুন আলোকসজ্জায় সেজে উঠেছে। বন্দরের আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, এরকম এর আগেও করেছি আমরা। এটাকে টেকনিক্যালি বলা হয় ডায়নামিক আর্কিটেকচার অফ লাইটিং।

    প্রসঙ্গত, হাওড়া ব্রিজের নয়া আলোকসজ্জার ব্যবস্থার উদ্বোধন করছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। গত বছর ১১ জানুয়ারি এর উদ্বোধন করা হয়েছিল। এরপর থেকে বিভিন্ন সময় বিশেষ বিশেষ দিনে এই আলোর বর্ণমালা তৈরি করা হয়। যেমন স্বাধীনতা দিবস, প্রজাতন্ত্র দিবস। এছাড়াও বিভিন্ন উৎসবের সময় যেমন, দুর্গাপুজোর সময়, দেওয়ালি, হোলির সময়ও ব্রিজকে সাজিয়ে তোলা হয়। এছাড়া আরও কিছু আন্তর্জাতিক দিন থাকে। ইন্টারন্যাশনাল ওমেন্স ডে, ব্রেস্ট ক্যান্সার অ্যাওয়ারনেস ডে সহ বিশেষ দিনগুলোতে সাজিয়ে তোলা হয় হাওড়া ব্রিজ।অলিম্পিকের রিং - এর পাঁচটি রঙে আলো জ্বলবে এবং নিভবে। মানুষের যাতে দেখে এই ক্রীড়া মহাযজ্ঞের কথা স্মরণ থাকে তাই এমন ভাবনা। তবে এই প্রথম নয়। অতীতেও ভারতের ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর বা মোহনবাগানের আই লিগ জয়ের পর এভাবেই সাজানো হয়েছিল হাওড়া ব্রিজ। তবে তখন রং আলাদা ছিল।বন্দরের তরফে বলা হয়েছে, যতদিন পর্যন্ত অলিম্পিক্স চলবে, ততদিন পর্যন্ত এই আলোকসজ্জা দেখতে পাওয়া যাবে। সেই আলোকসজ্জার বর্ণনা খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি করায় খুশি বন্দর আধিকারিকরা।

    Published by:Arka Deb
    First published: