Home /News /national /

PM Modi Security Breach: প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ইস্যুতে শো-কজ ভাটিন্ডার এসএসপিকে! ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জবাব তলব...

PM Modi Security Breach: প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ইস্যুতে শো-কজ ভাটিন্ডার এসএসপিকে! ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জবাব তলব...

প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা গাফিলতি প্রশ্নে পদক্ষেপ

প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা গাফিলতি প্রশ্নে পদক্ষেপ

PM Modi Security Breach: ফিরোজপুরে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর দফতরে ডেকে পাঠানো হয় ৫ জন এসএসপি-সহ পঞ্জাব পুলিশের মোট ১৩ জন উচ্চপদস্থ আধিকারিককে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : ভারতে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার (PM Modi Security Breach) মূল দায়িত্বে থাকে এসপিজি। এই স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপের নির্দিষ্ট একটি আইন রয়েছে। সেই আইনের বেশকিছু বিধি রয়েছে। এসপিজি আইন অনুযায়ী, কোথাও ভিভিআইপিদের নিরাপত্তা দেওয়ার ক্ষেত্রে এই আইন লঙ্ঘিত হলে সংশ্লিষ্ট রাজ্যের পুলিশ আধিকারিকদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে। কেন্দ্রীয় সরকার সেই পথেই হাঁটছে।

আরও পড়ুন: "ভোট করতে হলে..." ৫ রাজ্যে নির্বাচনের 'একমাত্র নিরাপদ' পথ বাতলে দিলেন প্রশান্ত কিশোর!

বৃহস্পতিবার রাতে উচ্চপর্যায়ের ৩ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তিন সদস্যের এই কমিটিতে রয়েছেন, ক্যাবিনেট দফতরের নিরাপত্তা সচিব সুধীর কুমার সাক্সেনা, ইন্টেলিজেন্স ব্যুরোর যুগ্ম অধিকর্তা বলবীর সিং এবং স্পেশ্যাল প্রোটেকশন গ্রুপের আইজি এস. সুরেশ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে এই কমিটিকে (PM Modi Security Breach) নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যত দ্রুত সম্ভব তদন্ত করে রিপোর্ট জমা করতে।

শুক্রবার তাঁরা ময়দানে (PM Modi Security Breach) নেমে পড়েছেন। এদিনই ফিরোজপুরে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর দফতরে ডেকে পাঠানো হয় ৫ জন এসএসপি-সহ পঞ্জাব পুলিশের মোট ১৩ জন উচ্চপদস্থ আধিকারিককে। রীতিমতো জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁদের। এঁরা ছিলেন পঞ্জাব পুলিশের তরফে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ব্যবস্থার সুপারভাইজার। ফিরোজপুরের কাছে কুলগরি থানায় অজ্ঞাত পরিচয় বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করল পঞ্জাব পুলিশ।

আরও পড়ুন: উঠছে NIA তদন্তের দাবি, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বিঘ্ন মামলায় কী বলল শীর্ষ আদালত?

অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে শোকজ নোটিস দেওয়া হয়েছে  ভাটিন্ডার সিনিয়র পুলিশ সুপার এসএসপি অজয় মালুজাকে। কেন ওই ঘটনা ঘটল? কোথায় নিরাপত্তার খামতি ছিল? কেন তাঁর বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে না? এই সব প্রশ্নের জবাব দিতে হবে তাঁকে। উত্তর দেওয়ার জন্য তাঁকে ২৪ ঘণ্টা সময় দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে এই নোটিস দেওয়া হয়েছে।

শনিবার বিকেল ৫ টার মধ্যে এসএসপিকে জবাব দিতে হবে। বৃহস্পতিবারই পঞ্জাবের মুখ্যসচিব অনিরুদ্ধ তিওয়ারি গত বুধবারের প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা সংক্রান্ত ঘটনাক্রমের বিশদ বিবরণ দিয়ে একটি রিপোর্ট জমা দিয়েছেন অমিত শাহের মন্ত্রকে। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা রাজ্যের শীর্ষ পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে এই রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে। এরপরই এই শোকজ নোটিস দেওয়া হল।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: PM Modi, Punjab

পরবর্তী খবর