‘তিনি ছিলেন আমার শিক্ষক’,অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈর প্রয়াণে শোকপ্রকাশ রাহুলের, শোকবার্তা মোদিরও

‘তিনি ছিলেন আমার শিক্ষক’,অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈর প্রয়াণে শোকপ্রকাশ রাহুলের, শোকবার্তা মোদিরও
টানা ১৫ বছর অসমের মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকার রেকর্ড রয়েছে তাঁর ৷ পাঁচবারের সাংসদ ও চারবারের এই বিধায়ক ছিলেন সমস্ত কংগ্রেস শীর্ষ নেতা-নেত্রীর প্রিয় পাত্র

টানা ১৫ বছর অসমের মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকার রেকর্ড রয়েছে তাঁর ৷ পাঁচবারের সাংসদ ও চারবারের এই বিধায়ক ছিলেন সমস্ত কংগ্রেস শীর্ষ নেতা-নেত্রীর প্রিয় পাত্র

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: সব লড়াই শেষ ৷ প্রণব দাশগুপ্তের পর ফের ইন্দ্রপতন রাজনীতিতে ৷ প্রয়াত অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেতা তরুণ গগৈ ৷ প্রবীণ রাজনীতিবিদের প্রয়াণে শোকের ছায়া রাজনৈতিক মহলে ৷ ট্যুইটে শোক প্রকাশ শোকার্ত রাহুল গান্ধির ৷ শোকবার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও ৷

    করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সেরে ওঠলেও  কোভিড পরবর্তী উপসর্গে বেশ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি ৷ গত কয়েকদিন ধরে গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন তিনি ৷ চিকিৎসকদের সমস্ত প্রচেষ্টা সত্ত্বেও তেমন সাড়া দিচ্ছিলেন ৷ সোমবার বিকেলে সমস্ত লড়াই শেষ ৷ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন অসমের সবথেকে জনপ্রিয় কংগ্রেসি নেতা ৷ বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর ৷

    আরও একটি রত্ন, আরও এক নেতা হারাল কংগ্রেস ৷ তরুণ গগৈর মৃত্যুসংবাদ পেয়ে ট্যুইটারে শোকবার্তা রাহুলের ৷ তিনি লেখেন,‘ শ্রী তরুণ গগৈই ছিলেন একজন সত্যিকারের কংগ্রেসি নেতা ৷ অসমের সমস্ত সম্প্রদায়ের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে তিনি নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন ৷ উনি আসলে একজন মহান ও দূরদর্শী শিক্ষক ছিলেন ৷ আমি ওনাকে অন্তর থেকে শ্রদ্ধা করতাম, ভালবাসতাম ৷ ওনার অনুপস্থিতি অনুভব করব ৷ ওনার পরিবারের জন্য আমার ভালবাসা ও সমবেদনা রইল ৷’


    শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও ৷ ট্যুইটে তিনি লিখেছেন, ‘শ্রী তরুণ গগৈজি ছিলেন একজন জনপ্রিয় নেতা এবং একজন অভিজ্ঞ প্রশাসক ৷ অসমের রাজনীতির সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় রাজনীতিতেও তাঁর সমান দক্ষতা ছিল ৷ ওনার মৃত্যুর খবরে আমি ব্যথিত ৷ এই শোকের সময়ে ওনার পরিবার ও সমর্থকদের জন্য সমবেদনা রইল ৷ ওম শান্তি ৷’

    অসমের রাজনীতির অন্যতম স্তম্ভ তরুণ গগৈ ৷ মূল কংগ্রসি ভাবধারা ও আদর্শই ছিল এই জনপ্রিয় নেতার সম্বল ৷ টানা ১৫ বছর অসমের মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকার রেকর্ড রয়েছে তাঁর ৷ পাঁচবারের সাংসদ ও চারবারের এই বিধায়ক ছিলেন সমস্ত কংগ্রেস শীর্ষ নেতা-নেত্রীর প্রিয় পাত্র ৷ তাঁর প্রয়াণে অসমের রাজনীতিতে বড় শূন্যতা তৈরি হল ৷

    Published by:Elina Datta
    First published: