ইউজিসি-র সার্কুলারে বিতর্ক, চাপে পড়ে বক্তৃতায় কৌশলী মোদি

ইউজিসি-র সার্কুলারে বিতর্ক, চাপে পড়ে বক্তৃতায় কৌশলী মোদি
Prime Minister Narendra Modi

স্বামী বিবেকানন্দের শিকাগো বক্তৃতার একশো পঁচিশ বছর ও দীনদয়াল উপাধ্যায়ের জন্ম শতবর্ষ পালন বিতর্কে পিছু হঠলেন মোদি।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: স্বামী বিবেকানন্দের শিকাগো বক্তৃতার একশো পঁচিশ বছর ও দীনদয়াল উপাধ্যায়ের জন্ম শতবর্ষ পালন বিতর্কে পিছু হঠলেন মোদি। আজ, বিজ্ঞান ভবনে স্টুডেন্ট লিডার্স কনভেনশনে তাঁর বক্তৃতায় ঘুরে ফিরে আসে স্বামী বিবেকানন্দের ঐতিহাসিক বক্তৃতার প্রসঙ্গ। উঠে আসে স্বামীজির জীবন দর্শনও। কিন্তু, দীনদয়াল উপাধ্যায়কে নিয়ে তত শব্দ খরচ করেননি প্রধানমন্ত্রী। বরং, ভারসাম্য বজায় রাখতে সঙ্ঘ পরিবারের নীতি-নির্ধারকের নাম কয়েকবার উচ্চারণ করেন মাত্র।

    ইতিহাসের নানা ঘটনার সমাপতন একই দিনে। সোমবারের তারিখকে সামনে রেখেই নির্দেশিকা জারি করে ইউজিসি। তাতেই বির্তক দানা বাঁধে। কী ছিল সেই নির্দেশিকায়?

    ইউজিসি-র বিতর্কিত নির্দেশিকা

    - সোমবার দীনদয়াল উপাধ্যায়ের জন্ম শতবার্ষিকী- ওইদিন স্বামী বিবেকানন্দের শিকাগো বক্তৃতার ১২৫ বছর- এই উপলক্ষ্যে স্টুডেন্টস লিডার্স কনভেনশনে বক্তৃতা দেবেন প্রধানমন্ত্রী মোদি- ওই বক্তৃতা সব রাজ্যের সব বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ছাত্রছাত্রীদের শোনানোর ব্যবস্থা করতে হবে

    স্বামী বিবেকানন্দ ও দীনদয়াল উপাধ্যায়কে এক আসনে বসানো নিয়েই বিতর্ক শুরু হয়। ইউজিসি-র নির্দেশিকা উড়িয়ে দেয় রাজ্য সরকার। সেই ধাক্কা যে ঠিক জায়গাতেই লেগেছে তা টের পাওয়া গেল প্রধানমন্ত্রীর কৌশলেই। সোমবার, স্বামীজিই হয়ে উঠলেন মোদির বক্তৃতার ভরকেন্দ্র।

    বক্তৃতার ওজন বাড়াতে, সহিষ্ণুতা ও দেশের অখণ্ডতা রক্ষা প্রসঙ্গে স্বামী বিবেকানন্দের দর্শন তুলে ধরেন মোদি। তুলে আনেন নয়া ভারত নির্মাণের কথাও। বদলে স্রেফ ছুঁয়ে যান সঙ্ঘ পরিবারের নেতা দীনদয়াল উপাধ্যায়কে।

    সোমবার আচার্য বিনোবা ভাবেরও জন্মদিন। বক্তৃতায় তা উল্লেখ করেন মোদি। তবে, স্বামীজিকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে প্রধানমন্ত্রী ভারসাম্য বজায়ের কৌশলই নিলেন বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

    First published: