Home /News /national /
লকডাউনে কী করে কাজ করবে সরকার? দেখে নিন প্ল্যান B...

লকডাউনে কী করে কাজ করবে সরকার? দেখে নিন প্ল্যান B...

গত ৩ এপ্রিল প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গোষ্ঠীর একটি বৈঠক হয়৷ সেই বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও উপস্থিত ছিলেন৷ ১৬ সদস্যের সেই বৈঠকেই করোনা নিয়ন্ত্রণে প্ল্যান বি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়৷ PHOTO- FILE

গত ৩ এপ্রিল প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গোষ্ঠীর একটি বৈঠক হয়৷ সেই বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও উপস্থিত ছিলেন৷ ১৬ সদস্যের সেই বৈঠকেই করোনা নিয়ন্ত্রণে প্ল্যান বি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়৷ PHOTO- FILE

সরকারের প্ল্যান বি কী ?

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: মঙ্গলবার করোনা ভাইরাস নিয়ে ফের একবার জাতীর উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ এদিন আগামী ২১ দিনের জন্য গোটা দেশে লকডাউনের ঘোষণা করেছেন মোদি ৷ কিন্তু সবার মনে একটাই প্রশ্ন এই পরিস্থিতিতে কী ভাবে কাজ করবে সরকার ? তবে চিন্তার কোনও কারণ নেই ৷ এই বিষয়ে আগে থেকেই সমস্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে সরকারের তরফে ৷

    এরকম পরিস্থিতিতে এত বড় দেশ চালানোর জন্য কেন্দ্র সরকার একটি বিশেষ যোজনার উপর কাজ করছে ৷ হিন্দুস্থান টাইমসের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কমপক্ষে ৫জন সরকারি আধিকারিক জানিয়েছেন, সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং লাগু করার আগে বিভিন্ন স্তরে এই নিয়ে পর্যালোচনা হয়েছে এবং দুটি বড় প্রশাসনিক সংস্থা একে অন্তিম রূপ দিয়েছে ৷ এর মধ্যে ক্যাবিনেট সচিবালয় ও শ্রম মন্ত্রালয় সামিল রয়েছে ৷

    রিপোর্ট অনুযায়ী, এক আধিকারিক জানিয়েছেন বর্তমানে ভিডিও কনফারেন্সিং অত্যন্ত জরুরি ৷ কোনও একটি বিষয়ে কাজ সম্পূর্ণ হয়ে গেলে আধিকারিকদের স্বাক্ষরের জন্য তাদের ফ্যাক্স বা ইমেল করে দেওয়া হবে ৷ এই সমস্ত কাজের জন্য সরকারি ইন্টারনেট কানেকশন ব্যবহার করা হচ্ছে ৷ কিন্তু জরুরি অবস্থায় প্রাইভেট লাইনও ব্যাকআপে রাখা হয়েছে ৷ যতটা সম্ভব ওয়ার্ক ফর্ম হোমের উপর জোর দেওয়া হয়েছে ৷

    সরকারের প্ল্যান বি কী ? শ্রম মন্ত্রালয়ের তরফে জানানো হয়েছে যে গ্রুপ বি ও সি কর্মীদের আলাদা আলাদা ব্যাচে রোস্টার করা হবে ৷ সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংয়ের জন্য এরকম পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে৷ পাশাপাশি বেশিরভাগ কর্মীদের ওয়ার্ক ফর্ম হোম করতে বলা হয়েছে ৷

    সমস্ত মন্ত্রালয়, প্রধানমন্ত্রীর অফিস, রাষ্ট্রীয় সূচনা বিজ্ঞান কেন্দ্র, সরকারের আইটি শাখা ২২ মার্চে নর্থ ব্লকের বাইরে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে ৷ ভারত সরকারের অতিরিক্ত সচিব সুজাতা চতুর্বেদির স্বাক্ষর রয়েছে এই নোটিসে ৷

    নোটিসে বলা হয়েছে যে কর্মচারীদের একটি রোস্টার তৈরি করতে হবে যাতে সমস্ত বিভাগ জরুরি পরিষেবা প্রদান করতে পারে ৷ তাদের ২৩ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ কার্যালয়ে একা উপস্থিত থাকতে বলা হতে পারে ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published:

    Tags: Corona Virus, COVID-19, Lockdown

    পরবর্তী খবর