আরসিইপি নিয়ে বিজেপি-কংগ্রেসের বাগযুদ্ধ, সনিয়াকে পাল্টা আক্রমণ পীযূষ গয়ালের

আরসিইপি নিয়ে বিজেপি-কংগ্রেসের বাগযুদ্ধ, সনিয়াকে পাল্টা আক্রমণ পীযূষ গয়ালের

RCEP নিয়েই বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে বাগযুদ্ধ ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনায় কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধি। এআইসিসির বৈঠকে সনিয়া গান্ধির অভিযোগ, দেশের অর্থনীতি গভীর সঙ্কটে। কেন্দ্রীয় সরকার সঙ্কটের পরিস্থিতি স্বীকারও করছে না, সমাধান বার করারও চেষ্টা করছে না। সোনিয়ার অভিযোগ, বিভিন্ন ইভেন্টে ব্যস্ত প্রধানমন্ত্রী। যার দাম দিতে হচ্ছে দেশের বেকার যুবক-যুবতী, কৃষকদের। কংগ্রেস সভানেত্রীর অভিযোগ, আর্থিক বৃদ্ধির হার গত ৬ বছরে এত খারাপ হয়নি। মোদি সরকারের সিদ্ধান্তের জন্য গত ৬ বছরে ৯০ লক্ষ মানুষ কাজ হারিয়েছেন।

সনিয়া গান্ধির RCEP নিয়ে মন্তব্যের উত্তরে বাণিজ্য মন্ত্রী পীযূষ গয়াল এদিন বলেন এনডিএ জমানায় ভারত এই চুক্তির জন্য আলোচনায় যোগ দেয় ৷ গয়াল বেশ কয়েকটি টুইটে মনে করিয়ে দেন, অতীতে ইউপিএ আমলেও বেশ কয়েকটি মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি করেছে সরকার। বাণিজ্য চুক্তি হয়েছে আসিয়ান গোষ্ঠী, দক্ষিণ কোরিয়া এবং জাপানের সঙ্গে।একাধিক ট্যুইট করে এদিন গয়াল বলেন,‘আচমকা RCEP ও FTA এ বিষয়ে চোখ খুলেছে সনিয়াজির ৷ কোথায় ছিলেন তিনি যখন ASEAN এর সঙ্গে FTA চুক্তি হয় ২০১০ সালে ? দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে যখন FTA চুক্তি হয় ২০১০ সালে কোথায় ছিলেন তিনি ?

তিনি আরও বলেন, ‘কোথায় ছিলেন তিনি যখন তার সরকার মার্কেটের ৭৪ শতাংশ খুলে দিয়েছিল ASEAN দেশগুলির জন্য ৷ কিন্তু ইন্দোনেশিয়ার মতো ধনী দেশ মাত্র ৫০ শতাংশ খুলেছিল ভারতের জন্য ৷ সেই সময় কেন ধনী দেশগুলিকে বেশি ছাড় দেওয়ার বিষয়ে মুখ খোলেননি ?’

শনিবার মোদি সরকারের বিরুদ্ধে সনিয়া গান্ধি বলেছিলেন RCEP চুক্তির জেরে দেশের চাষী, ব্যবসাদারদের আরও সমস্যা বাড়বে ৷

RCEP প্রস্তাবিত আঞ্চলিক মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি ৷ সোমবার RCEP নিয়ে বৈঠকে ভারতের সিদ্ধান্তের উপরেই অনেকটা নির্ভর করছে আসিয়ান গোষ্ঠী-সহ ১৬টি দেশের ওই মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি।

First published: November 3, 2019, 1:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर