দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিয়ের দিন বউয়ের পিরিয়ডস! রেগে আগুন স্বামী-শাশুড়ি, বিবাহবিচ্ছেদের মামলা...

বিয়ের দিন বউয়ের পিরিয়ডস! রেগে আগুন স্বামী-শাশুড়ি, বিবাহবিচ্ছেদের মামলা...

ঋতুমতী নববধূ প্রবেশ করেছিলেন পারিবারিক মন্দিরে৷ ফলে পারিবারিক মর্যাদা এতে ক্ষুন্ন হয়েছে বলে অভিযোগ রবের পরিবারের৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিয়ের সময় নববধূ ঋতুমতী৷ সেই নিয়েই কূলদেবতার মন্দিরে প্রবেশ৷ মন্দিরে ঢোকার কিছু আগেই স্ত্রী জানান যে তাঁর পিরিয়ডস হয়েছে৷ এই অবস্থায় বিয়ের সব আচারে অংশ নিয়েছেন নতুন বউ৷ যার ফলে পারিবারিক সম্মান ও বিশ্বাসে আঘাত এসেছে বলে মত ছেলের পরিবারের৷ সকলেই এই ঘটনায় খুবই ক্ষুন্ন৷ মূলত ঋতুস্রাবকে অসূচি বলে মনে করেন সমাজের বহু মানুষ৷ এই কয়েকটা দিন কোনও মন্দির বা শুভকাজে মেয়েদের অংশগ্রহণ, সমাজের অনেকেই মেনে নেন না৷ এখনও এই ধারা চলছে৷ যতই ঋতুস্রাব নিয়ে মানুষের মনের ভুল ধারণা বা কুসংস্কার দূর করার চেষ্টা হোক না কেন, এখনও সেকেলে চিন্তা বা বিশ্বাস কাটিয়ে উঠতে পারেননি সমাজের একস্তরের মানুষ৷ সেই কুসংস্কারাচ্ছন্ন পরিবারেই ঘটল এমন ঘটনা৷ ফলে নতুন বউয়ের প্রতি প্রথম থেকেই তৈরি হল বিরোধ৷ গুজরাতের ভদোদরায় এই ঘটনার পর থেকেই বাড়ির বউয়ের সঙ্গে বনিবনা হত না পরিবারের কোনও সদস্যের৷ যার ফল স্বরূপ করা হল বিবাহবিচ্ছেদের মামলা৷

ডিভোর্স ফাইল করে মহিলার স্বামী আরও জানান যে, তার কাছে প্রচুর দামী জিনিসপত্র দাবি করতেন স্ত্রী৷ না দিতে পারলেই আত্মহত্যার হুমকি দিতেন৷ ২০২০-র জানুযারি মাসে বিয়ের হয় তাদের৷ স্ত্রী পেশায় শিক্ষিকা, স্বামী বেসরকারি সংস্থা কর্মরত৷ অভিযোগ যে, বিয়ের পর সংসার খরচের টাকা দিতে নিষেধ করেন স্ত্রী৷ উল্টে প্রতি মাসে তার হাতে ৫হাজার টাকা দিতে বলেন তিনি৷ ঘরে এসিও বসাতে বলেন ওই মহিলা৷ এমনই জানিয়েছেন তাঁর স্বামী৷ এসি না বসানোয়, স্ত্রী তাঁর বাপের বাড়ি চলে যান বলে অভিযোগ৷ এরপর যদিও তাঁর মান ভাঙিয়ে ফিরিয়ে আনা হয় শ্বশুরবাড়িতে, তিনি প্রায়সই বাপের বাড়ি চলে যেতেন এবং কিছুতেই ফিরতে চাইতেন না৷

স্ত্রীও স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন বাপোড থানায়৷ স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে তাঁকে অত্যাচারের অভিযোগ এনেছেন তিনি৷ যদিও তাঁর অভিযোগ সব ভুয়ো, বলছেন স্বামী৷

Published by: Pooja Basu
First published: December 25, 2020, 4:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर