সস্তায় বিরিয়ানি, চিকেন কাটলেট, ফিশ চপের দিন শেষ! সংসদের ক্যান্টিনে মিলবে নিরামিষ খাবার...

সস্তায় বিরিয়ানি, চিকেন কাটলেট, ফিশ চপের দিন শেষ! সংসদের ক্যান্টিনে মিলবে নিরামিষ খাবার...
Representative image.

তাই প্রমাদ গুণছেন অনেক সাংসদ থেকে সংসদ ভবনের কর্মীরা!

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সংসদ ভবনের ক্যান্টিনে খুবই সস্তায় পাওয়া যায় মনপসন্দ খাবার৷ তা সে বিরিয়ানি হোক বা চিকেন কাটলেট বা সুস্বাদু মাছের চপ৷ বিপুল ভর্তুকিতে মেলা খাবারের দাম ছিল খুবই কম৷ আর সেই খাবারের মান ইদানিং খুব খারাপ হয়ে গিয়েছিল৷ এমনই অভিযোগ উঠেছে IRCTC-র বিরুদ্ধে৷ দেশের সাংসদের জন্য বরাদ্দ এই ক্যান্টিনের খাবার তৈরি দায়িত্বে ছিল এই সংস্থা৷ এবার তাদের সরিয়ে অন্য ভেন্ডার দায়িত্ব নিতে চলেছে৷ সম্ভবত হলদিরাম বা বিকানেরওয়ালা মধ্যে কোনও এক সংস্থা পেতে চলেছে এই দায়িত্ব৷ এমন হলে যে সংসদ ক্যান্টিন পুরোটাই নিরামিষ হয়ে যাবে তা বলাই বাহুল্য৷ কারণ এই দু’টি সংস্থা ভেজিটেরিয়ান ব্র্যান্ড হিসেবে পরিচিত৷ তাই প্রমাদ গুণছেন অনেক সাংসদ থেকে সংসদ ভবনের কর্মীরা!

তবে হলদিরাম এবং বিকানেরওয়ালার পাশাপাশি সরকার চালিত অন্য এক সংস্থা রয়েছে দৌড়ে৷ কার হাতে যাবে দায়িত্ব, তা ফুড কমিটির অবর্তমানে ঠিক করবেন লোকসভার স্পিকার ওপ বিড়লা৷ IRCTC-র পেশ করা খাবার খারাপ, এমন অভিযোগ উঠেছিল৷ তাই খাবার ও ক্যাটারিং সংস্থা বাতিলের দাবি জানানো হয়েছিল অবিলম্বে৷

ক্যাটারিং বদলের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে বাজেট সেশনে৷ এই নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বিজনেস অ্যাডভাইসারি কমিটি৷ খাবার দামেও হেরফের করা হতে পারে৷ এক বছরে সংসদে খাবার পিছনে খরচ হয় ১৭ কোটি টাকা যার মধ্যে অনেকটাই ভর্তুকি রয়েছে৷ ভর্তুকি পুরোপুরি উঠে যাওয়ার পক্ষেও মত দিয়েছেন বেশকিছু সাংসদ৷

First published: 03:34:42 PM Jan 15, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर