corona virus btn
corona virus btn
Loading

পঞ্জাবে লকডাউনের মাঝে নেশামুক্তির জন্য নাম লিখিয়েছেন ২৬ হাজার মানুষ

পঞ্জাবে লকডাউনের মাঝে নেশামুক্তির জন্য নাম লিখিয়েছেন ২৬ হাজার মানুষ

সাধারণত মাদকাসক্তির হাত থেকে বাঁচতে যাঁরা নিয়মিত চিকিৎসা করেন, তাঁদের নিয়মমাফিক ওষুধেরও প্রয়োজন হয়।

  • Share this:

#‌চন্ডীগড়:‌ পঞ্জাবে চলছে কার্ফু, লকডাউন। কিন্তু তার মধ্যে মাত্র ২১ দিনে প্রায় ২৬ হাজার মানুষ পঞ্জাব সরকারের মাদকের নেশার বিরুদ্ধে চলা কর্মসূচিতে নাম লিখিয়েছেন। এই প্রকল্পের জন্য পঞ্জাব সরকার লকডাউনের মধ্যেও অংশ নেওয়া মানুষের হাতে পৌঁছে দিচ্ছে প্রয়োজনীয় ওষুধ। যাতে নিয়মিত চিকিৎসায় কোনও গাফিলতি না হয়। সাধারণত মাদকাসক্তির হাত থেকে বাঁচতে যাঁরা নিয়মিত চিকিৎসা করেন, তাঁদের নিয়মমাফিক ওষুধেরও প্রয়োজন হয়। লকডাউনের সময়ে যদি কোনও ভাবে সময়মতো সেই ওষুধ না পাওয়া যায়, তাহলে গোটা প্রক্রিয়াতেই সমস্যা তৈরি হয়। আর সেই কারণেই এই সংকটময় মুহূর্তেও মাদকাসক্তির বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যেতে চাইছে পঞ্জাব সরকার।

পঞ্জাবের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলবীর সিং জানিয়েছেন, ‘‌যাঁদের ‌মাদকাসক্তি রয়েছে, তাঁদের মধ্যে জন্য ১৯৮ ওওএটি ক্লিনিক, ৩৫ টি সরকার পরিচালিত ক্লিনিক এবং ১০৮টি বেসরকারি ক্লিনিক রয়েছে পঞ্জাবে। তাঁরা নিয়মিত প্রয়োজনীয় ওষুধ পৌঁছে দিচ্ছেন মানুষের কাছে। তাঁদের চিকিৎসা চলছে সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং মেনেই। চিকিৎসকরা স্যানিটাইজেশনের সমস্ত নিয়ম মেনেই কাজ করে চলেছেন।

পঞ্জাবের সরকার এখন মাদকাসক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করতে বদ্ধ পরিকর। সেই কারণে সমস্ত জেলায় জেলায় প্রশাসনিক শীর্ষ কর্তাদের কাছে নির্দেশ পৌঁছেও গিয়েছে এই বিষয়ে। মাদকে আসক্ত রোগীদের জন্য সরকার আলাদা করে বিশেষ ব্যবস্থা নিচ্ছে। এঁদের মধ্যে বেশিরভাগই যুবক। তাই তাঁদের সারিয়ে তোলার আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে অমরিন্দর সিং সরকার।

First published: April 15, 2020, 12:23 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर