ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের শপথগ্রহণ, এ যেন এক বিজেপি বিরোধী ঐক্যের মঞ্চ

ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের শপথগ্রহণ, এ যেন এক বিজেপি বিরোধী ঐক্যের মঞ্চ

ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান হয়ে উঠল বিজেপি বিরোধী ঐক্যের মঞ্চ।

  • Share this:

#রাঁচি: ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান হয়ে উঠল বিজেপি বিরোধী ঐক্যের মঞ্চ। একমঞ্চে ১১টি রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব। CAA ও NRC বিরোধী বিক্ষোভের মধ্যেই জাতীয় রাজনীতিতে একজোট হয়ে লড়াইয়ের প্রস্তুতি।

সময় বদলেছে। রাজনৈতিক পরিস্থিতিও অনেক বদলে গেছে। তবু ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর শপথ অনুষ্ঠানের ছবিটা ২০১৮-য় কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রীর হিসেবে কুমারস্বামীর শপথ অনুষ্ঠানকেই মনে করাল।

এটা নেহাতই উপলক্ষ্য। বিজেপিকে হারিয়ে ঝাড়খণ্ডের ক্ষমতায় জেএমএম-কংগ্রেস-আরজেডি জোট। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে হেমন্ত সোরেনের শপথ অনুষ্ঠান ঐক্যের ছবিটা তুলে ধরতে চাইলেন বিরোধী নেতারা। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি, আরজেডির তেজস্বী যাদব, সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি, সিপিআইয়ের ডি রাজা, ডিএমকের কানিমোঝি, এমকে স্ট্যালিন। মমতার পাশাপাশি মঞ্চে আরও দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। রাজস্থানের অশোক গেহলত ও ছত্তীশগড়ের ভূপেশ বাঘেল।

রাঁচীর মোরাবাদী ময়দানে নতুন মুখ্যমন্ত্রীকে শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল দ্রৌপদী মুর্মু। তাঁর সঙ্গে মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন জেএমএম-এর দু’জন, কংগ্রেসের এক জন।

শনিবারই হোটেলে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করেন হেমন্ত সোরেন। শপথগ্রহণ মঞ্চেও মমতার সঙ্গে দলীয় বিধায়দের আলাপ করিয়ে দেন শিবু সোরেনের ছেলে।

অরবিন্দ কেজরিওয়াল, কমলনাথ, শরদ পওয়াররা, উদ্ধব ঠাকরে শপথগ্রহণে না থাকলেও শুভেচ্ছাবার্তা পাঠিয়েছেন। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের টুইট,

ঝাড়খণ্ডবাসী আপনার ওপর আস্থা রেখেছে। আপনি সেই আস্থার মর্যাদা রাখবেন বলেই আমার বিশ্বাস।

কর্নাটকে এইচ ডি কুমারস্বামীর শপথ অনুষ্ঠানেও বিরোধী ঐক্যের ছবি তুলে ধরতে চেয়েছিলেন নেতারা। কর্নাটকের সেই সরকার পরে গেছে। পরিস্থিতিও অনেক বদলেছে। লোকসভা ভোটে বিপুল সাফল্য পেলেও এখন

নতুন বছরের প্রথম ভাগে দিল্লি ও বিহারে ভোট। এই দুই রাজ্যে ভোট সমীকরণে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে বিরোধী ঐক্য। জানুয়ারিতে পরের বৈঠকের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিরোধী নেতারা।

First published: 11:09:22 PM Dec 29, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर