শুধু অসমিয়ারাই জমি কিনতে পারবেন অসমে, শীঘ্রই আসছে নয়া আইন

শুধু অসমিয়ারাই জমি কিনতে পারবেন অসমে, শীঘ্রই আসছে নয়া আইন
অসম

অসমের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার ঘোষণা, অসমের আদিবাসীরা তাদের জমির উপর যাতে পূর্ণ মালিকানা উপভোগ করতে পারে, তার জন্য নতুন আইন চালু করা হচ্ছে৷

  • Share this:

#গুয়াহাটি: নাগরিকত্ব আইন নিয়ে যখন উত্তর-পূর্ব সহ গোা ভারত উত্তাল, তখন অসমে সিএএ নিয়ে ভয়ে কিছু নেই, এই বিশ্বাস জোগাতে মরিয়া রাজ্যের বিজেপি সরকার৷ যার নির্যাস, খুব শীঘ্রই এমন একটি নতুন আইন আনছে সরকার, যাতে শুধু মাত্র অসমিয়ারাই অসমে জমি কিনতে পারবেন৷ ইতিমধ্যেই সেই নতুন আইন তৈরির কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে৷

অসমের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার ঘোষণা, অসমের আদিবাসীরা তাদের জমির উপর যাতে পূর্ণ মালিকানা উপভোগ করতে পারে, তার জন্য নতুন আইন চালু করা হচ্ছে৷ এই আইনে শুধু মাত্র অসমিয়ারাই অসমে জমি কিনতে পারবেন৷ অন্য কোনও রাজ্যের মানুষ জমি কিনতে পারবেন না৷ তাঁর কথায়,'দেখা যাচ্ছে, বরপেটা, ধুপরি জেলার আদিবাসীরা তাদের জমি ছেড়ে অন্যত্র গিয়ে বাস করছেন অর্তনৈতিক বা অন্যান্য কারণে৷ এই নতুন বিলে, অসমের আদিবাসীরা তাদের জমি শুধুমাত্র অসমের আদিবাসীকেই বিক্রি করতে পারবে বা তার থেকে কিনতে পারবে৷ অসম বিধানসভার আগামী অধিবেশনেই এই বিল পেশ করা হবে৷'

গত কয়েক মাসে সরকার বিরোধী একাধিক আন্দোলন চলছে অসমে৷ এনআরসি ও পরে সিএএ নিয়ে বিক্ষোভ চলছে৷ এ হেন অবস্থায় অসমবাসীর বিশ্বাস ফেরাতে মরিয়া বিজেপি সরকার৷ বিশেষ করে কেন্দ্রের নয়া আইনে ভয়ে রয়েছেন উত্তর-পূর্বের আদিবাসীরা৷ অসম সরকার কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানাচ্ছে, সংবিধানের ৩৪৫ ধারা সংশোধন করে ঘোষণা করা হোক, বরাক উপত্যকা, বোড়োল্যান্ড ও পার্বত্য জেলাগুলি বাদে অসমিয়াকে রাষ্ট্রীয় ভাষার মর্যাদা দেওয়া হবে৷ সর্বানন্দ সোনওয়ালের সরকার একটি নতুন বিল আনছে আগামী অধিবেশনে, যেখানে ইংরেজি ও অন্যান্য মাধ্যমের স্কুল, কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়গুলিতেও অসমিয়াকে আবশ্যিক ভাষা করতে হবে৷

এ ছাড়া ৬টি উপজাতি উন্নয়ন পর্ষদ, যেমন মিসিং, রাভা, থেঙ্গাল কচারি, সোনোওয়াল কাচারি, দেওরি ও তিওয়াকে সাংবিধানিক মর্যাদা দেওয়া হোক, যাতে তারা কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার থেকে অন্যান্য সুযোগ সুবিধার সঙ্গে আর্থিক সাহায্যও পায়৷ পাশাপাশি কোচ রাজবংশী, মতক ও মোরান সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য তিনটি স্বশাসিত কাউন্সিল গঠন করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য মন্ত্রিসভা৷ বিশ্বশর্মা জানান, মেডিক্যাল, ইঞ্জিনিয়ারিং, ভেটেরিনারি সায়েন্স ও স্নাতকে তাই অহম, কোচ রাজবংশী, চুতিয়াদের জন্য আসন সংরক্ষণ থাকবে৷

একই সঙ্গে অসম টি কর্পোরেশনের শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি ১৩৭ থেকে বাড়িয়ে ১৬৭ টাকা করার সিদ্ধান্ত নিল সর্বানন্দ সোনোওয়াল সরকার৷ পয়লা জানুয়ারি ২০২০ থেকেই নয়া মজুরি চালু হয়ে যাচ্ছে৷

First published: 08:31:01 AM Dec 22, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर