পাবজির কবলে পড়ে মৃত্যু ছাত্রের! ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে এই গেম...

পাবজির কবলে পড়ে মৃত্যু ছাত্রের! ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে এই গেম...
photo source collected
  • Share this:

#হায়দরাবাদ: রাস্তাঘাটে চলতে চলতে অনেক সময় দেখতে পাবেন, এক দল বাচ্চা রাস্তার কোথাও একজোট হয়ে মোবাইলে কি সব যেন করছে। আপনি ভাবতেই পারেন করছেটা কী তারা। তারা আসলে গেম খেলছে। ওয়াইফাই জোন দেখলেই ছেলে মেয়েরা ভিঢ় জমিয়ে ফেলে। আসলে তারা সবাই এক সঙ্গে পাবজি খেলছে। এই পাবজি গেমের নেশা এমন যে ছেলে-মেয়েরা খাওয়া দাওয়া ভুলে, পড়াশোনা ছেড়ে শুধু খেলে যাচ্ছে। এতে সমস্যা বাড়ছে শুধু বাবা মায়ের নয়, বাচ্চারাও বদলে যাচ্ছে। ক্ষতি হচ্ছে তাদের মন মানসিকতার। পাবজির কবলে পড়ে অনেক অপ্রীতিকর ঘটনাই ঘটেছে দেশের বিভিন্ন শহরে। অনেক রাজ্যে এই পাবজিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। সেরকমই এক ঘটনা ঘটেছে হায়দরাবাদে। পাবজি খেলা নিয়ে মা-বাবার বকুনি সহ্য করতে না পেরে আত্মঘাতী হল এক কিশোর। ‌

দশম শ্রেণীর ছাত্র কাল্লাকুরি সম্বাশিভাকে সোমবার নিজের ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্বাশিভা তার মোবাইল ফোনে সবসময় পাবজি খেলত। তার আত্মঘাতী হওয়ার পরের দিনই বোর্ড পরীক্ষা শুরু হয়েছে। সোমবার পরীক্ষার জন্য পড়াশোনা না করে সম্বাশিভা পাবজি খেলছিল। যার জন্য তার মা তাকে বকা দেয়। বকা খেয়ে সম্বাশিভা রাগ করে তার ঘরে ঢুকে যায় এবং সেখানেই সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে পড়ে। এর আগে তেলঙ্গানার এক কিশোর গলায় আঘাতের জন্য মারা যায়। সে দীর্ঘ ৪৫ দিন টানা পাবজি খেলছিল। এছাড়াও কর্নাটকের এক পড়ুয়া পরীক্ষার খাতায় পাবজি কি করে খেলতে হয়, তা লিখে আসে। মধ্যপ্রদেশে পাবজিতে মত্ত এক যুবক জলের বদলে অ্যাসিড খেয়ে নেয়। যার ফলে মৃত্যু হয় তার। পাবজি খেলা এই দেশে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে। ক্রমে তা নেশায় পরিণত হয়েছে। অভিভাবকরা এই মোহ থেকে নিজেদের সন্তানদের বাঁচাতে চিকিত্‍সকদের শরণাপন্ন হচ্ছেন।

First published: 02:47:36 PM Apr 04, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर