'কাশ্মীরের বাসিন্দাদের গণতান্ত্রিক অধিকার খর্ব করা কি দেশদ্রোহিতা নয়', প্রশ্ন প্রিয়াঙ্কা গান্ধির

'কাশ্মীরের বাসিন্দাদের গণতান্ত্রিক অধিকার খর্ব করা কি দেশদ্রোহিতা নয়', প্রশ্ন প্রিয়াঙ্কা গান্ধির

'জাতীয়তাবাদের নামে লক্ষাধিক মানুষর মতপ্রকাশ ও গণতান্ত্রিক অধিকারগুলিকে দমিয়ে দেওয়া হচ্ছে'

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিমানে রাহুল গান্ধিকে কাশ্মীরের দুরবস্থার কথা জানাচ্ছেন মহিলা, সোশ্যাল মিডিয়ায় মুহূর্তে ভাইরাল সেই ভিডিও । ৫ অগাস্ট থেকে কার্যত স্তব্ধ কাশ্মীর উপত্যকা ও এর জেরে চরম দুর্ভোগের সম্মুখীন স্থানীয় বাসিন্দারা, রাহুলকে জানিয়েছেন সেই কাশ্মীরি মহিলা । 'আমাদের বাচ্ছারা বাড়ি থেকে বেরোতে পারছে না। আমার ভাইয়ের হার্টের সমস্যা কিন্তু ১০ দিন ধরে কোনওরকম চিকিৎসা বা ডাক্তার দেখাতে পারে নি সে, আমাদের অবস্থা অত্যন্ত খারাপ', রাহুলকে এই কথা জানাতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন সেই মহিলা ।

সেই ভিডিওর প্রতিক্রিয়াতেই ফের কেন্দ্রকে নিশানা করেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি ।'কাশ্মীরের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নেওয়ার চেয়ে বড় দেশদ্রোহী কার্যকলাপ', একাধিক ট্যুইটে জানিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা ।

'কতদিন ধরে এরকম চলবে?জাতীয়তাবাদের নামে লক্ষাধিক মানুষর মতপ্রকাশ ও গণতান্ত্রিক অধিকারগুলিকে দমিয়ে দেওয়া হচ্ছে', ট্যুইটে লিখেছেন প্রিয়াঙ্কা । পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকারগুলিকে যথেচ্ছভাবে খর্ব করা হল সবথেকে বড় দেশদ্রোহীতার নিদর্শন ও আমাদের প্রত্যেকের উচিৎ এর বিরুদ্ধে সরব হওয়া ।  

গতকাল শ্রীনগর বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয়েছিল রাহুল গান্ধি সহ অন্যান্য বিরোধী নেতাদের । বিমানেই তাঁদের দিল্লি ফেরত পাঠানো হয় ও সেই বিমানেই রাহুলকে এই পরিস্থিতির কথা জানিয়েছেন ওই কাশ্মীরি মহিলা । কাশ্মীরে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গেও দুর্ব্যবহার করা হয়েছে বলে অভিযোগ রাহুলের |

First published: 04:13:26 PM Aug 25, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर