• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • পোষা কুকুরছানাকে মেরে চরম নৃশংসতা, নেটিজেনদের দাবি, চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হোক কালপ্রিটকে

পোষা কুকুরছানাকে মেরে চরম নৃশংসতা, নেটিজেনদের দাবি, চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হোক কালপ্রিটকে

সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। রাগে ফুঁসে উঠছেন নেটিজেনরা। তাঁদের দাবি, কুকুরছানাকে যে এভাবে মারতে পারে, তার এমপ্লয়ারের উচিৎ তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা।

সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। রাগে ফুঁসে উঠছেন নেটিজেনরা। তাঁদের দাবি, কুকুরছানাকে যে এভাবে মারতে পারে, তার এমপ্লয়ারের উচিৎ তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা।

সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। রাগে ফুঁসে উঠছেন নেটিজেনরা। তাঁদের দাবি, কুকুরছানাকে যে এভাবে মারতে পারে, তার এমপ্লয়ারের উচিৎ তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা।

  • Share this:

    #নয়ডা: ছোট্ট এক কুকুরছানাকে কেউ মারছে। এমনই দেখা যাচ্ছে সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে। ভিডিও দেখে তো সকলেই হাঁ হয়ে গিয়েছেন। এত মিষ্টি, ছোট্ট কুকুরছানাকে দেখলেই তো আদর করতে ইচ্ছে করে। তাকে কেউ এভাবে মারতে পারে! বাডি তার নাম। মারের চোটে যন্ত্রণায় ছটফট করছিল সে। সারা শরীরে তার আঘাতের চিহ্ন। শুধু তাই নয়, ফিমারে ফ্র্যাকচারও হয়েছে, যা বেশ কষ্ট দিচ্ছে।

    সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। রাগে ফুঁসে উঠছেন নেটিজেনরা। তাঁদের দাবি, কুকুরছানাকে যে এভাবে মারতে পারে, তার মালিকের উচিৎ তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা। বেশ কয়েক সপ্তাহ আগেই সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা হয়েছে এই ভিডিও। ভিডিওটিতে স্পষ্ট, নয়ডা’র এক ব্যক্তি, ১০ মাস বয়সের পোষা কুকুরছানাকে বেল্ট দিয়ে মারছে নিজের বাড়িতেই। রিষভ মেহরা নামের ওই ব্যক্তি, নয়ডার সেক্টর ১০০ এর লোটাস বলেভার্ড-এর বাসিন্দা। মারের চোটে চিৎকার করছিল ছোট্ট কুকুরছানা। তার চিৎকার শুনেই নিজের বারান্দায় ছুটে আসেন পিপল ফর অ্যানিম্যালস সংস্থার একজন সদস্য। পুরো ঘটনাটি নিজের ক্যামেরায় রেকর্ড করেন তিনি।

    এরপর ভিডিওটি ট্যুইটারে শেয়ার করেন সুকৃতী নামের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার ওই সদস্য। খুব অল্প সময়েই ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিও। বিজেপি’র নেত্রী এবং পিপল ফর অ্যানিম্যালস-এর প্রতিষ্ঠাতা মেনকা গান্ধীর নজরে এসেছে বিষয়টি। এরপরই, এফআইআর করা হয়েছে রিষভ মেহরার নামে। গত ৫ ডিসেম্বর, মেনকা গান্ধী একটি ট্যুইটে লিখেছেন যে এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়নি ওই ব্যক্তিকে, কারণ সে পলাতক।

    চেঞ্জ.ওআরজি নামের একটি সাইটে, সুকৃতির তৈরি একটি পিটিশনও শেয়ার করেছেন মেনকা গান্ধী। পিটিশনের নাম দেওয়া হয়েছে ‘জাস্টিস ফর বাডি’। পিটিশনে তিনি লিখেছেন কুকুরটির অবস্থা সম্পর্কে। সম্ভবত সে আর কখনও হাঁটতে পারবে না। ট্যুইটারে এখন ট্রেন্ডিং হ্যাশট্যাগ #জাস্টিসফরবাডি। নেটিজেনদের অনেকেই দাবি তুলেছেন, কগনিজ্যান্ট কোম্পানির এখনই উচিৎ ওই নৃশংস ব্যক্তিকে বরখাস্ত করা। এমনকী বলিউডের অভিনেত্রী রিচা চাড্ডাও একটি ট্যুইটে একই কথা লিখেছেন।

    Published by:Antara Dey
    First published: