• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • 'ধর্মীয় স্লোগান দিতে বাধ্য করা হচ্ছে,' ফের বিস্ফোরক অমর্ত্য সেন

'ধর্মীয় স্লোগান দিতে বাধ্য করা হচ্ছে,' ফের বিস্ফোরক অমর্ত্য সেন

অমর্ত্য সেন

অমর্ত্য সেন

দেশে ধর্মীয় ভেদাভেদ নিয়ে ফের উদ্বেগ প্রকাশ করলেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন৷ বিভিন্ন জায়গায় ধর্মীয় হিংসা নিয়েও সরব হলেন তিনি৷ বললেন, ভারতীয় সংবিধানে সব ধর্মের স্থান রয়েছে৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দেশে ধর্মীয় ভেদাভেদ নিয়ে ফের উদ্বেগ প্রকাশ করলেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন৷ বিভিন্ন জায়গায় ধর্মীয় হিংসা নিয়েও সরব হলেন তিনি৷ বললেন, ভারতীয় সংবিধানে সব ধর্মের স্থান রয়েছে৷

    সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে এর আগেও সরব হয়েছেন অমর্ত্য সেন৷ একটি সাক্ষাত্‍কারে দেশে ধর্মীয় হিংসা প্রসঙ্গে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ বলেন, 'ধর্মীয় স্লোগান দিতে বাধ্য করা হচ্ছে৷ নির্দেশ না-মানলে মারধর করা হচ্ছে৷ মানবাধিকার নিয়ে আমাদের জানা উচিত৷ ভারতীয় সংবিধানে সব ধর্মের স্থান রয়েছে৷ ধর্মীয় ভেদাভেদ থেকে হিংসা কেন?'

    দেশের ধর্মীয় হিংসা ও অসহিষ্ণুতা নিয়ে এর আগেও একাধিক বার মুখ খুলেছেন অমর্ত্য সেন৷ লোকসভা ভোটের দেশে গেরুয়া ব্রিগেড যখন রাম মন্দির তৈরি নিয়ে হাওয়া গরম করছিল, তখন ধর্মীয় ইস্যুতে মাতামাতিতে রীতিমতো উদ্বেগ প্রকাশ করেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ৷ তাঁর মত ছিল, বেকারত্ব, দেশের আর্থিক বৃদ্ধির মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি থেকে নজর ঘোরাতেই রাম মন্দির নিয়ে মাতামাতি করছে বিজেপি সরকার৷

    অমর্ত্য সেন বলেছিলেন, 'একজন সমাজবিজ্ঞানী হিসেবে আমার মনে হয়, বেকারত্ব, আর্থিক বৃদ্ধির মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি থেকে নজর ঘোরাতেই রাম মন্দির, গোরক্ষা, শবরীমালা-সহ ধর্মীয় বিষয় গুলি নিয়ে মাতামাতি করা হচ্ছে৷ আর্থিক বৃদ্ধির হার যদিও বেশি, কিন্তু‌ তাতে গরিবের জীবনযাত্রার মানোন্নতি হয়নি৷ ঠিক এই জায়গাতেই, গোরক্ষা বা মন্দিরে নজর ঘোরানো প্রয়োজন হয়ে পড়েছে৷'

    First published: