corona virus btn
corona virus btn
Loading

৩ মে পর্যন্ত বন্ধ যাত্রী বিমান পরিষেবা, টিকিটের টাকা কি ফেরত দেবে বিমানসংস্থাগুলি ?

৩ মে পর্যন্ত বন্ধ যাত্রী বিমান পরিষেবা, টিকিটের টাকা কি ফেরত দেবে বিমানসংস্থাগুলি ?
Representational Image

অধিকাংশ বিমান সংস্থাগুলিও ঘোষণা করেছে, আগামী ৩ মে পর্যন্ত সমস্ত বুকিং তারা বাতিল করছে তারা।

  • Share this:

#কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশে ভাষণের সঙ্গে সঙ্গেই ট্যুইট করে দেশের অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক জানিয়ে দিল, আগামী ৩ মে রাত ১২টা পর্যন্ত দেশের সমস্ত রকম দেশি এবং বিদেশি উড়ান বন্ধ থাকবে।এর সঙ্গে অধিকাংশ বিমান সংস্থাগুলিও ঘোষণা করেছে, আগামী ৩ মে পর্যন্ত সমস্ত বুকিং তারা বাতিল করছে তারা।

ভারতের লো কস্ট বিমানসংস্থাগুলির মধ্যে সবচেয়ে বড় বিমান সংস্থা ইন্ডিগো জানিয়েছে, ৩ মে পর্যন্ত বুকিং বাতিলের ৫-৭ দিন পরে টিকিটের পুরো টাকা ক্রেডিট সেলে পাঠানো হবে। আগামী এক বছরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট ক্রেতা ওই অর্থ ব্যবহার করে টিকিট কাটতে পারবেন। একই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে স্পাইসজেটও।

এর আগে অধিকাংশ বিমান সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে। সে সময়ে বিভিন্ন মহলে ধারণা ছিল, কেন্দ্রীয় সরকার আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন চালিয়ে যাবে। কিন্তু আজ, মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী জানিয়ে দেন, লকডাউন চলবে আগামী ৩ মে পর্যন্ত। এর পরেই মন্ত্রকের পক্ষ থেকে ওই ঘোষণা করা হয়। একই ঘোষণা করা হয়েছে ডিজিসিএ-র পক্ষ থেকেও। কেন্দ্রের অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী বলেছেন, "অনেকেরই এতে অসুবিধে হচ্ছে। কিন্তু পরিস্থিতির কারণে আপনারা আমাদের সঙ্গে থাকুন।"

ইতিমধ্যে বিমান সংস্থাগুলির পক্ষ থেকে লকডাউনের মধ্যবর্তী সময়ে যাঁরা টিকিট কেটেছেন, তাঁদের টাকা ফেরতের কথা ঘোষণা করা হয়েছে। যদিও নগদ টাকা না ফিরিয়ে সংস্থাগুলি ক্রেডিট ফান্ডে টাকা ফেরতের কথা জানিয়েছে। সে ক্ষেত্রে ওই টাকা দিয়ে পরবর্তী টিকিট কাটতে পারবেন গ্রাহকেরা। যদিও এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মহল থেকে মন্ত্রকের কাছে বিমান সংস্থাগুলিকে নগদ টাকা ফেরানোর দাবি জানানো হয়েছে।

বিমান মন্ত্রকের এক কর্তা বলেন, "আগামী ৩ মে রাত ১২টা পর্যন্ত যাত্রী পরিষেবা পুরোপুরি বন্ধ থাকবে।"টিকিট রিফান্ড নিয়ে কর্তাটি বলেন, "বিষয়টি নিয়ে বিমান সংস্থাগুলির সঙ্গে প্রয়োজনীয় আলোচনার পরেই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।"

Shalini Datta

First published: April 14, 2020, 6:08 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर