৫০০ মাদ্রাসায় গীতা-রামায়ণ-মহাভারত পড়ানোর প্রস্তাব কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীর

প্রতীকী ছবি

NIOS-এর নতুন প্রস্তাবে ১৫টি নতুন কোর্সের কথা বলা হয়েছে। ভারতীয় ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির বাহক হিসেবে তালিকায় রাখা হতে পারে বেদ, যোগ, বিজ্ঞান, ভোকেশনাল স্কিল, সংস্কৃত ভাষা, রামায়ণ ও মহাভারত।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: জাতীয় ওপেন স্কুলিং সংস্থা (NIOS)-র নতুন প্রস্তাবে পাঠক্রমে এবার মাদ্রাসায় হিন্দুধর্মের একাধিক ধর্মগ্রন্থ পড়ানোর সম্ভাবনা। ভারতীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য পড়ানোর উদ্দেশ্যে প্রস্তাবের তালিকায় রয়েছে গীতা, রামায়ণের নাম। জানা গিয়েছে, প্রায় ১০০টি মাদ্রাসায় এই ধর্মগ্রন্থগুলি পড়ানো হতে পারে। পরে আরও বাড়ানো হবে মাদ্রাসার সংখ্যা। NIOS-এর নতুন কোর্সের সিলেবাসে রাখা হবে এই ধর্মগ্রন্থগুলি। জাতীয় শিক্ষা নীতি অনুযায়ী এগুলি রাখা হতে পারে সিলেবাসে। 'ভারতীয় জননা পরম্পরা' বা ভারতীয় শিক্ষার ঐতিহ্য বজায় রাখার জন্যই এই প্রস্তাব বলে জানা গিয়েছে। ক্লাস ৩,৫ ও ৮-এ রাখা হবে এই ধর্মগ্রন্থগুলি।

    NIOS-এর নতুন প্রস্তাবে ১৫টি নতুন কোর্সের কথা বলা হয়েছে। ভারতীয় ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির বাহক হিসেবে তালিকায় রাখা হতে পারে বেদ, যোগ, বিজ্ঞান, ভোকেশনাল স্কিল, সংস্কৃত ভাষা, রামায়ণ ও মহাভারত। পড়ানো হবে ভগবত গাতীর বিভিন্ন শ্লোক এবং মহেশ্বরা সূত্র। ভারতীয় শিক্ষা মন্ত্রকের অধীনে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ওপেন স্কুলিং (NIOS)-একটি স্বাধীন শিক্ষা সংস্থা। যে সমস্ত পড়ুয়ারা নিয়মিত স্কুলে গিয়ে পড়াশোনা করতে অপারগ, এখানে তাঁদেরকে পড়ানোর কাজ করা হয়।

    NIOS-এর নতুন এই প্রস্তাবের কথা ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ডক্টর রমেশ পোখরিয়াল। তিনি এই ঘোষণা করার সময় স্টাডি মেটেরিয়াল সামনে আনার পাশাপাশি ভারতীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের কথাও উল্লেখ করেছেন। তাঁর মন্তব্য, ভারত প্রাচীন ভাষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতির ধারক ও বাহক। এই প্রাচীন ভাষা ও ঐতিহ্য বহন করে দেশ শিক্ষার শিখরে পৌঁছতে পারবে। এই নতুন প্রস্তাবে ভারতীয় ছাত্রছাত্রীদের বিরাট উপকার হবে বলেই মনে করেন তিনি।

    কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীর দাবি, NIOS-এর নতুন এই প্রস্তাব মাদ্রাসা ও আন্তর্জাতিক পড়ুয়াদের ভারতীয় ঐতিহ্য বুঝতে সাহায্য করবে। NIOS-এর চেয়ারম্যান বলেছেন, অন্তত ১০০টি মাদ্রাসায় এই নতুন পাঠক্রম চালু করা হবে প্রাথমিক ভাবে। পরে সেটি চালু করার টার্গেট থাকবে ৫০০টি মাদ্রাসায়।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: